অস্ট্রেলিয়ান ঔপন্যাসিকদের প্রসঙ্গ এলে যাদের নাম অবধারিতভাবে সামনে চলে আসে, লিয়ান মরিয়ার্টি তাদের মধ্যে অন্যতম। থ্রি উইশেস, দ্য লাস্ট অ্যানিভার্সারি, হোয়াট এলিস ফরগট, দ্য হিপনোটিস্ট'স লাভ স্টোরি, দ্য হাজব্যান্ডস সিক্রেট ও বিগ লিটল লাইসসহ আন্তর্জাতিকভাবে বিক্রীত ছয়টি বেস্টসেলার উপন্যাসের লেখক তিনি। লিয়ান মরিয়ার্টি প্রথম অস্ট্রেলিয়ান লেখক, যার বই নিউইয়র্ক টাইমসের তালিকায় বেস্টসেলার হয়। তার ব্রেকআউট নোবেল 'দ্য হাজব্যান্ডস সিক্রেট' সারা বিশ্বে বিক্রি হয় তিন মিলিয়নেরও বেশি। এটি ২০১৩ সালের অ্যামাজনের সেরা বই ও যুক্তরাজ্যের এক নাম্বার বেস্টসেলার। চল্লিশটিরও বেশি ভাষায় বইটি অনূদিত হয়।

চলতি বছরের আগস্ট মাসে প্রকাশিত হয় তার নতুন উপন্যাস 'অ্যাপেলস নেভার ফল'। প্রকাশের কিছুদিনের মধ্যেই নাম উঠে আসে অ্যামাজনের বেস্টসেলারের তালিকায়। সুখী দাম্পত্য জীবনের অন্তরালে ঘটে যাওয়া কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার সাবলীল ও রহস্য বর্ণনা উৎসুক শব্দে আবির্ভূত হয়েছে তার লেখায়। চার সন্তান নিয়ে ডেলানির সুখী পরিবার। হঠাৎ এক দিন তার স্ত্রী নিখোঁজ হয়ে যায়। সবার সন্দেহের চোখ তার দিকে। সন্তানরাও বিশ্বাস করতে পারে না যে তাদের বাবা কর্তৃক তাদের মা নিখোঁজ হয়েছে। দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হয়ে পড়ে তারা। শুরু হয় পুলিশি তদন্ত। আরেক দম্পতি জয় ও স্ট্যান। দু'জন মিলে একটি টেনিস স্কুল চালায়। সম্প্রতি কাজ থেকে অবসর নেয় তারা। এক রাতে তাদের বাড়িতে হানা দেয় সাভান্নাহ নামক একজন। ঘরে ঢুকে আক্রমণ ও হাতাহাতির একপর্যায়ে জয়ের প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। ঘটনার পরে জয় নিখোঁজ হয়ে যায়। সাভান্নাকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যায় না। পুলিশ একজনকে সন্দেহভাজন মনে করে। সে আর কেউ নয়, স্বয়ং স্ট্যান। কিন্তু স্ট্যান নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করে। তাকে দেখে মনে হয় সে কিছু একটা লুকানোর চেষ্টা করছে। এভাবেই ঘটনাগুলো বাঁক নিতে থাকে অননুমেয় এক পরিণতির দিকে। যেখানে একে একে উঠে আসে দাম্পত্যের কিছু সূক্ষ্ণ ও চিরায়ত ঘটনার সুচারু রূপায়ণ লিয়ানের অনবদ্য বর্ণনায়।

মন্তব্য করুন