নন্দন

নন্দন

৯১তম একাডেমি অ্যাওয়ার্ড

মনোনীত ৮ চলচ্চিত্র

প্রকাশ: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

২০১৮ সালে মুক্তি পাওয়া আটটি চলচ্চিত্র এবারের ৯১তম অস্কারে চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছে। পুরস্কারটি কার ঝুলিতে যাবে, সেটা জানতে হলে যেহেতু অপেক্ষা করতেই, পাঠক তার আগে আমরা বরং দেখে নিই করা ভাগ্যে শিকে ছিঁড়বে, কে করতে পারে বাজিমাত। লিখেছেন শুভ্র মিসির

একাডেমি অ্যাওয়ার্ড তথা অস্কার বিশ্ব চলচ্চিত্রের অন্যতম প্রধান উৎসব। গোটা বিশ্বের চলচ্চিত্রপ্রেমীরা তো বটেই, অভিনেতা-অভিনেত্রী, পরিচালকসহ সবাই বছরজুড়ে অধীর অপেক্ষায় থাকেন এ মাহেন্দ্রক্ষণের। ২৪ ফেব্রুয়ারি লস অ্যাঞ্জেলেসের হলিউড ডলবি থিয়েটারে বসছে ২০১৯ সালের আসর। মোট ২৪টি ক্যাটাগরির মধ্যে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকে বেস্ট পিকচার বা সেরা চলচ্চিত্রের বিভাগটি।

ব্ল্যাক প্যানথার

গত বছর মার্ভেল স্টুডিওর আলোচিত ও ব্যবসাসফল চলচ্চিত্র 'ব্ল্যাক প্যানথার'। রায়ান কুগলারের পরিচালনায় অভিনয় করেছেন শাদভিক বোজমান, মাইকেল বি জর্ডান, লুপিতা নাইয়ং ও দানাই গুরিরা। এর গল্প আফ্রিকার কল্পিত দেশ ওয়াকান্দাকে নিয়ে। ওয়াকান্দার রাজার মৃত্যুর পর যুবরাজ ত'চালা হয় সেখানকার প্রধান। নিজ দেশ ও সিংহাসন বাঁচাতে তাকে নামতে হয় এক অসম যুদ্ধে। গল্প, নান্দনিক নির্মাণ আর মনছোঁয়া সঙ্গীতের কল্যাণে ৭০০ মিলিয়ন ডলার আয় করা চলচ্চিত্রটি এরই মধ্যে ২০১৮ সালজুড়ে গোল্ডেন গ্লোব, ব্রিটিশ একাডেমি ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড, আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ডসহ নামিদামি সব পুরস্কারই জিতে নিয়েছে। এবারের অস্কারে বেস্ট পিকচারের পাশাপাশি আরও ছয়টি বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছে। অস্কারের জুরি বোর্ড বক্স অফিসে ঝড় তোলা সিনেমাগুলোকে সাধারণত এড়িয়েই যান। সে ক্ষেত্রে অন্য ক্যাটাগরিগুলোয় সম্ভাবনা থাকলেও সেরা চলচ্চিত্র হওয়ার দৌড়ে 'ব্ল্যাক প্যানথার' ক্ষাণিক পিছিয়ে থাকবে বলে মনে করছেন চলচ্চিত্র-বোদ্ধারা।

ব্ল্যাক ল্যান্সম্যান

১৯৭০ সালের প্রথমদিকে যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডোর কালো পুলিশ কর্মকর্তা রন স্টলওর্থের জীবন ও তার সাহসিকতার সত্য ঘটনা নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্র 'ব্ল্যাক ল্যান্সম্যান'। বর্ষীয়ান নির্মাতা স্পাইক লির পরিচালনায় এ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন জন ডেভিড ওয়াশিংটন, অ্যাডাম ড্রাইভার, টোফার গ্রেস। গত বছর কান চলচ্চিত্র উৎসবে জুরিদের পুরস্কার গ্র্যান্ড প্রিক্স জয় করে নেয় এটি। বেস্ট পিকচারের পাশাপাশি 'ব্ল্যাক ল্যান্সম্যান' সেরা পরিচালক, সেরা পার্শ্ব অভিনেতা ও সেরা এডিটিং বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছে। নির্মাতা স্পাইক লির নাম এবারই প্রথম অস্কারের লিস্টে এসেছে বলে অবাকও হয়েছেন অনেকে। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, সেরা চলচ্চিত্র বিভাগে 'ব্ল্যাক ল্যান্সম্যান'-এর সম্ভাবনা বেশ জোরাল। সেরা পরিচালক ও সেরা পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে তিনি পুরস্কার লাভ করলেও কেউ অবাক হবেন না!

বোহেমিয়ান রেপসোডি

গত বছরের নভেম্বরে মুক্তি পায় দুনিয়া কাঁপানো ব্রিটিশ ব্যান্ড কুইনের প্রধান রক মিউজিকের ঈশ্বর নামে খ্যাত ফ্রেদ্ধডি মার্কারির জীবনীভিত্তিক চলচ্চিত্র 'বোহেমিয়ান রেপসোডি'। চলচ্চিত্র আলোচকদের বিরূপ মন্তব্য সত্ত্বেও অল্প বাজেটের এটি আয় করেছে ৮২০ মিলিয়ন ডলার। এবারের অস্কারে বেস্ট পিকচার্স, বেস্ট অ্যাক্টরের পাশাপাশি পাঁচটি বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছে 'বোহেমিয়ান রেপসোডি'। গত মাসে অনুষ্ঠিত ৭৬তম গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডে বেস্ট মোশন পিকচার-ড্রামা বিভাগে সেরার মুকুটটি জয় করেছিল চলচ্চিত্রটি। ফ্রেদ্ধডি মার্কারির চরিত্রে অভিনয় করা রামি মালেকও পেয়েছেন সেরা অভিনেতার পুরস্কার। তবে 'বোহেমিয়ান রেপসোডি' এবার অস্কারে সেরা হবে কি-না, এ নিয়ে দ্বন্দ্বে আছেন বোদ্ধারা। অবশ্য বেস্ট অ্যাক্টর হিসেবে রামি মালেকের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছেন না কেউ!

দ্য ফেভারিট

আঠারো শতকের গ্রেট ব্রিটেনের রানী অ্যানি। তার সময়কার যুদ্ধ-জর্জরিত রাজ্য ও তার খামখেয়ালি স্বভাবকে হাস্যরসে তুলে ধরা হয়েছে কমেডি ড্রামা 'দ্য ফেভারিট'-এ। ইংল্যান্ড, আয়ারল্যান্ডজুড়ে বেশ সমালোচনা হলেও চলচ্চিত্রটি দর্শক আর সমালোচকদের মন জয় করে নিয়েছে। এমা স্টোন, অলিভিয়া কোলম্যান ও র‌্যাচেল হেইজ অভিনীত এ চলচ্চিত্র আলোচিত গ্রিক তরুণ পরিচালক ইয়র্গস লেন্থিমসের কারণেও। এবার অস্কারের জন্য সর্বোচ্চ দশটি বিভাগে মনোনীত হয়েছে এটি। 'দ্য ফেভারিট' বেস্ট পিকচার বিভাগে জয়ের ব্যাপারে কতটা ফেভারিট, সেটা নিয়ে সংশয় আছে খোদ অস্কারবোদ্ধাদের মনেই! তবে অন্যান্য বিভাগে এটি কঠিন লড়াইয়ে নামবে বলেই মানছেন সবাই।

গ্রিন বুক

রিয়েল লাইফ কমেডি ড্রামা 'গ্রিন বুক'। পঞ্চাশের দশকে কৃষ্ণাঙ্গ আর শ্বেতাঙ্গ- এ দুই মানুষের অসম বন্ধুত্বের সত্য গল্প নিয়ে এই চলচ্চিত্র। বিখ্যাত কৃষ্ণাঙ্গ পিয়ানো বাদক ও শিল্পী ডন শিরলের ব্যক্তিগত ড্রাইভার টনি, তাকে শিরলে একটি গ্রিন বুক দেয়, যেখানে কালো মানুষদের হোটেল- রেস্টুরেন্টের তালিকা থাকে। পথে নানা প্রতিকূলতার মধ্যে ধীরে ধীরে গড়ে ওঠে তাদের মধ্যে সমাজ-অস্বীকৃত এক বন্ধুত্ব। পিটার ফারেল্লির পরিচালনায় কেন্দ্রীয় চরিত্রে দেখা যাবে অস্কারজয়ী মাহেরশাল আলী ও ভিগো মর্টেনসেনকে। বেস্ট পিকচারসহ পাঁচটি বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছে 'গ্রিন বুক'। বাজিকরদের বাজির দরেও বেশ এগিয়ে রয়েছে, এবার দেখা যাক আসলেই কী হয়!

রোমা

৯১তম অস্কারে বেস্ট পিকচার নমিনেশন লিস্টের যে চলচ্চিত্রটি নিয়ে সবচেয়ে বেশি আলোচনা, সেটি হলো 'রোমা'। সেমি-অটোবায়োগ্রাফিক্যাল ড্রামা ঘরানার চলচ্চিত্রটি মেক্সিকান পরিচালক আলফানসো কুয়ারোনের শৈশবের বিশেষ কিছু ঘটনা, পরিবেশ, ব্যক্তি, মেক্সিকোর রাজনৈতিক অস্থিরতা ও গৃহযুদ্ধের সময়ে তার পরিবারকে যে তিক্ত অভিজ্ঞতার ভেতর দিয়ে যেতে হয়েছে তারই বয়ান। ২০১৩ সালে 'গ্রাভিটি' সিনেমার জন্য প্রথম লাতিন পরিচালক হিসেবে অস্কারজয়ী কুয়ারোনের 'রোমা' এবারও সমালোচক, বোদ্ধা ও বাজিকরদের বিচারে অস্কারের দৌড়ে বেশ এগিয়ে আছে। সাদামাটা গল্পের পাশাপাশি কুশীলবদের অসাধারণ অভিনয় এবং দুর্দান্ত সিনেমাটোগ্রাফিতে মুগ্ধ সবাই। গোল্ডেন গ্লোবের পাশাপাশি ক্রিটিকস চয়েস অ্যাওয়ার্ডের ২৪তম আসরে ভূরি ভূরি পুরস্কার পাওয়া এ চলচ্চিত্রটি সেরা চলচ্চিত্রের পাশাপাশি সেরা নির্মাতা, সেরা বিদেশী ভাষার চলচ্চিত্র, সেরা অভিনেত্রীসহ 'দ্য ফেভারিট'-এর মতো সর্বোচ্চ দশটি বিভাগে মনোনীত হয়েছে। এখন অপেক্ষার পালা, 'রোমা' এবার অস্কারে সেরা চলচ্চিত্রের তকমা জিতে কতটা বাজিমাত করতে পারে!

অ্যা স্টার ইজ বর্ন

২০১৮ সালের অন্যতম আলোচিত ও ব্যবসাসফল চলচ্চিত্র 'অ্যা স্টার ইজ বর্ন'। পরিচালক হিসেবে হলিউডের পরিচিত মুখ অভিনেতা ব্রাডলি কুপারের যাত্রা এর মাধ্যমে। সব ছাপিয়ে এটি সবার মুখে মুখে আলোচিত-সমালোচিত সঙ্গীতশিল্পী লেডি গাগার কল্যাণে। এ চলচ্চিত্রের নায়িকা হিসেবে অভিনয় করেছেন তিনি। ১৯৩৭ সালের প্রথম রঙিন চলচ্চিত্রের মধ্যে অন্যতম 'অ্যা স্টার ইজ বর্ন'-এর রিমেক সিনেমায় দেখা যায় বিখ্যাত গায়ক ও গান রচয়িতা জ্যাকসন মাইনকে। ঘটনাক্রমে সে একদিন আবিস্কার করে বার সিঙ্গার অ্যালি মাইনকে। তাকে পাদপ্রদীপের আলোয় নিয়ে আসে জ্যাকসন। এভাবে তাদের মধ্যে গড়ে ওঠে প্রেম। সেখান থেকে সম্পর্কে টানাপড়েন। ২০১৯-এর অস্কারে সেরা চলচ্চিত্রসহ সেরা অভিনেতা-অভিনেত্রী, পাশ্বচরিত্রসহ আট ক্যাটাগরিতে লড়বে চলচ্চিত্রটি। সেরা চলচ্চিত্রের তালিকায় থাকলেও 'অ্যা স্টার ইজ বর্ন'-এর সম্ভাবনা বেশ ক্ষীণ বলেই মানছেন চলচ্চিত্র-বোদ্ধারা।

ভাইস

বায়োগ্রাফিক্যাল কমিডি ড্রামা 'ভাইস'। ২০০১ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে থাকা ডিক চেনির জীবন ও সে সময়কার ঘটনাবহুল সময় নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছেন অ্যাডাম ম্যাককে। ডিক চেনির চরিত্র রূপায়ণ করেছেন এক সময়ের 'ব্যাটম্যান'খ্যাত অভিনেতা ক্রিস্টিয়ান বেল। এ ছাড়া গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে আছেন অ্যামি অ্যাডামস, স্টিভ ক্যারেল ও স্যাম রকওয়েল। এরই মধ্যে দর্শক ও সমালোচকদের মন জয় করে নেওয়া চলচ্চিত্রটির জন্য ২৪তম ক্রিটিকস চয়েস অ্যাওয়ার্ডে ক্রিস্টিয়ান বেল জিতে নিয়েছেন সেরা অভিনেতার পুরস্কার। এবারের অস্কারে 'অ্যা স্টার ইজ বর্ন'-এর মতো আটটি ক্যাটাগরিতে মনোনয়ন পেয়েছে চলচ্চিত্রটি। বোদ্ধাদের মতে, বেস্ট পিকচার ক্যাটাগরিতে 'ব্ল্যাক ল্যান্সম্যান' আর 'রোমা'র পাশাপাশি 'ভাইস'-এর সম্ভাবনাই সবচেয়ে বেশি!