ব্যান্ডের অগ্রসৈনিক

প্রকাশ: ১৬ মে ২০১৯      

শাফিন আহমেদ

মাইলস ও ফিডব্যাক কাছাকাছি সময়ের দুটি ব্যান্ড। গত চার দশক বহু আয়োজনের সঙ্গে আমরা ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে ছিলাম। সৃষ্টির নেশায় বিভোর ছিলাম সবাই। ব্যান্ড আন্দোলনেও একসঙ্গে লড়াই করে গেছি। এভাবেই নানা আয়োজনে অংশ নেওয়ার মধ্য দিয়ে ফিডব্যাকের প্রতিটি সদস্যের সঙ্গে তৈরি হয়েছে বল্পূব্দত্ব। সেই বন্ধুত্বের জন্যই ফিডব্যাকের চার দশক পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত কনসার্টে অংশ নিয়েছে মাইলস। সেই কনসার্টে মাইলসের হয়ে আমি গেয়েছিলাম ফিডব্যাকে 'বঙ্গাব্দ ১৪০০' অ্যালবামের 'টেলিফোনে ফিস ফিস' গানটি। কিছু মানুষের প্রশ্ন ছিল, ফিডব্যাকের চার দশকপূর্তির আয়োজনে মাইলস কেন? এর জবাবে নিজেই একটি প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছিলাম এই বলে যে, বন্ধুত্বের জন্য যদি প্রাণ দেওয়া যায়; তাহলে গান কেন শোনানো যাবে না? এই প্রশ্ন সামনে রেখেই প্রশ্নকর্তাদের জানিয়েছি, ফিডব্যাকের সদস্যদের সঙ্গে আমাদের বন্ধুত্ব বহুদিনের। যাকে সবাই আলাদা করে ব্যান্ডসঙ্গীত বলে থাকেন, তা সর্বস্তরে ছড়িয়ে দিতে যেসব ব্যান্ড ভূমিকা রেখেছে, ফিডব্যাক তাদের অন্যতম। অসংখ্য জনপ্রিয় গানের মধ্য দিয়ে লাখো শ্রোতার হৃদয় জয় করেছে এই ব্যান্ড। আর এভাবেই গানে গানে চার দশক পাড়ি দিয়েছেন এর সদস্যরা। এটা সহজ কথা নয়। এ নিয়ে তারা উৎসব করবে- এটাই স্বাভাবিক। আজ যে ব্যান্ডগুলো দেশে শীর্ষস্থান দখল করে আছে, সে তালিকায় অবশ্যই ফিডব্যাকের নাম থাকবে। ব্যান্ডের অগ্রসৈনিক বলা যায় এর সদস্যদের।

পরবর্তী খবর পড়ুন : শুরুর দিনগুলো

অন্যান্য