প্যাচআল

প্যাচআল

আফসু ভাই এবং একজন এডিস আপুর খোশগল্প!

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট ২০১৯

ওহাব ওহী

আফসু ভাই : এই এডিস! আমার শরীরে বসলি যে! জানিস না, আমি অপরিচিত পরপুরুষ!

এডিস আপু : হেঃ হেঃ হেঃ! আমগো আবার পরিচিত-অপরিচিত! আমরা হজ্ঞগ্দলের রক্তই খাই!

আফসু ভাই : আচ্ছা! তোদের এত বংশবিস্তার হলো কীভাবে? আর তোদের স্বভাব-চরিত্রের ধরনও তো দেখছি পাল্টে গেছে!

এডিস আপু : এ জন্য তো আপনারাই দায়ী জনাব! আপনারা এসি ছাইড়্যা উপরতলায় আরামসে ঘুমাইবেন আর বাড়ির আশপাশে জলাবদ্ধ নোংরা আবর্জনার ভাগাড় বানায়া রাখাবেন, তা তো হইতে পারে না! এ জন্য আমরাও এখন আপনাগো এসি রুমে ঢুইক্যা গেছি!

আফসু ভাই : আমার মাথায় ঢুকে না, তগো মারার জন্য এত ওষুধ ছিটাইল, কিন্তু কিছুতেই কিচ্ছু হইলো না! ব্যাপারটা কী?

এডিস আপু : একটু কাছে আহেন, কানে কানে কই! আসলে ওষুধ নামের যে জিনিসটা ছিটাইছে, সেইটা কিন্তু ওষুধ না! ডেটল! ডেটল গোলা পানি! হেইতে কি আর আমগো জীবন নাশ হয়!

আফসু ভাই : লক্ষ-কোটি মানুষকে পীড়া দিয়ে তোরা তো হালায় এখন বেশ ফেমাস! দেশেও চলতাছে তোদের নিয়ে চটকদার রম্যনাটক আর বিচিত্র লাইভ কমেডি শো! এ ব্যাপারে কি কিছু জানিস?

এডিস আপু : জানি, আর এও জানি, ইদানীং আপনাদের ঢাকা শহরের দুই মেয়র ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, যেসব বাসাবাড়িতে আমগো আণ্ডা-বাচ্চা আই মিন লার্ভা পাওয়া যাইব; সেসব বাড়ির মালিকগণকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হবে! এ জন্য দেখতেছি অনেক বাসার মালিকও এখন আমাদেরকে একা ফেলে এদিক-সেদিক আত্মীয়স্বজনের বাড়িতে পালায়া বেড়াইতেছে!

আফসু ভাই : তার মানে তুই বলছিস, এখন আমগো আরও বেশি পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন এবং সচেতন হওয়া জরুরি?

এডিস আপু : আলবত জরুরি! সময় থাকতে বাঙালি জাতির কোনোদিনই হুঁশ হয় নাই! তবে এখনও সময় আছে! সচেতন হউন আর পৃথিবীর অন্য সব সভ্য ও পরিচ্ছন্ন দেশগুলোর দিকে তাকান! যেইখানে আমগো মতো এডিস-ফেডিসের খাওয়া নাই!

...হঠাৎ আফসু ভাই তার পশ্চাৎদেশে জোরছে একটি থাপ্পড় মেরে দাঁড়িয়ে গেলেন! এই কিডা রে...! আফসু ভাই দেখেন একটু দূরেই আরও একটি এডিস আপু পাখনা উড়িয়ে নেচে নেচে হাসছে আর বলছে... ও ভাইজান! এক ডোজ দিয়া দিছি! যানগিয়া, এইবার হাসপাতালে ভর্তি হোন!



হ দক্ষিণ শ্যামপুর, সাভার, ঢাকা