ক্যাম্পাস

ক্যাম্পাস


ফিনল্যান্ডে পড়াশোনা

প্রকাশ: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০      

জাবেদ ইকবাল

ষআইইএলটিএসে নূ্যনতম ৬ স্কোর থাকতে হবে।

ষ এন্ট্রান্স পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে (ব্যাচেলর ডিগ্রির জন্য)।

ষ তিন বছরের কাজের অভিজ্ঞতা (মাস্টার্স ডিগ্রির জন্য)।

ষ উচ্চ মাধ্যমিক ডিগ্রি (ব্যাচেলর ডিগ্রির জন্য)।

ষ ব্যাচেলর ডিগ্রি (মাস্টার্স ডিগ্রির জন্য)।

ষ মাস্টার্স ডিগ্রি (পিএইচডি ডিগ্রির জন্য)।

কীভাবে করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন?

১. সরাসরি যে কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাডমিশন অফিসে মেইলের মাধ্যমে

২. বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে আবেদনপত্র সংগ্রহ করে

৩. কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনে আবেদন করে।

ওপরের ভর্তি প্রক্রিয়ার জন্য সংশ্নিষ্ট কার্যক্রম সাধারণত এক বছর সময় হাতে রেখে শুরু করতে হয়। সাধারণত আবেদনের সময়সীমা শেষ হওয়ার ছয় থেকে আট মাসের মধ্যে কর্তৃপক্ষ তাদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেয়।

আবেদন করতে যেসব ডকুমেন্ট লাগে

ষ সব শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র (ইংরেজিতে অনুবাদ)

ষ সর্বশেষ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাড়পত্র

ষ ভাষাগত যোগ্যতার প্রমাণপত্র

ষ রিকমেন্ডেশন লেটার

ষ মোটিভেশন লেটার

ষ পাসপোর্টের ফটোকপি।

ভিসা আবেদনের জন্য কী করতে হবে?

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অফার লেটার পেলেই আপনাকে ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। এ ক্ষেত্রে আপনার কোর্স যদি ৯০ দিনের বেশি সময়ের হয়, তাহলে আপনাকে রেসিডেন্স পারমিটের জন্য আবেদন করতে হবে। বাংলাদেশে ফিনিশ এমবাসি না থাকায় আপনাকে পাশের দেশ ভারত যেতে হবে আবেদনের জন্য। এমবাসিতে যাওয়ার আগে আপনাকে অবশ্যই অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে হবে। অ্যাপয়েন্টমেন্টের জন্য ই-মেইল করুন। আপনি যদি কোনো কারণে আপনার অ্যাপয়েন্টমেন্টটি বাতিল করতে চান, তাহলে অ্যাপয়েন্টমেন্টের তারিখের কমপক্ষে তিন দিন আগে এমবাসিকে জানাতে হবে।

ভিসা আবেদনের জন্য যেসব ডকুমেন্ট লাগবে

ষ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাওয়া অফার লেটারের সফট কপি

ষ ভিসা ফি

ষ টিউশন ফির পেমেন্ট কপি

ষ স্টাডি পারমিটের পূরণকৃত অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম (ফ্যামিলি ডিটেলসসহ)

ষ পাসপোর্ট

ষ আপনার সব ধরনের একাডেমিক কাগজপত্র

ষ চারটি পাসপোর্ট সাইজের ছবি

ষ ব্যাংক ব্যালেন্সের কপি

ষ আপনি পুরোপুরি সুস্থ তার প্রমাণ হিসেবে মেডিকেল রিপোর্ট।

কাজের কি কোনো সুযোগ আছে?

ফিনল্যান্ডে ইউরোপের বাইরের ছাত্রছাত্রীরা সপ্তাহে সর্বোচ্চ ২৫ ঘণ্টা কাজের সুযোগ পেয়ে থাকেন। তবে সামারে (জুন-আগস্ট) পূর্ণকালীন কাজ করতে পারবেন। আপনি যদি ফিনিশ, নরওয়েজিয়ান, রাশিয়ান অথবা সুইডিশ ভাষা না জানেন, তাহলে ফিনল্যান্ডে কাজ জোগাড় করা প্রকৃতপক্ষে কঠিন। এ ছাড়া পড়াশোনা শেষে আপনাকে এক বছরের ভিসা দেওয়া হবে চাকরি খোঁজার জন্য। া