ক্যাম্পাস

ক্যাম্পাস

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় অবসরে অবেক্ষণ

প্রকাশ: ২৭ জুলাই ২০২০

তানিউল করিম জীম

শিক্ষার্থীদের জ্ঞান ও দক্ষতা অর্জনের উন্মুক্ত জায়গা বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়ে শিক্ষার্থীরা নিজেদের দক্ষতা অর্জন করার জন্য বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত হয়। পারস্পরিক সাহায্য ও সহযোগিতায় তারা নিজেদের দক্ষ হিসেবে গড়ে তুলতে সক্ষম হয়। তেমনি দক্ষ সংগঠক তৈরির মূলমন্ত্র নিয়ে এগিয়ে যাওয়া একটি সংগঠন 'বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) অর্গানাইজার্স সোসাইটি (বাউওএস)'। একঝাঁক উদ্যম তরুণ-তরুণীর প্রচেষ্টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে দক্ষতা ও নেতৃত্বের গুণাবলি বৃদ্ধি করে দক্ষ সংগঠক তৈরির লক্ষ্যে নতুন এই সংগঠনটির যাত্রা শুরু হয় ২০২০ সালের শুরুতে। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের প্রথম আয়োজন 'অবসরে অবেক্ষণ'। যা একটি বই রিভিউ প্রতিযোগিতা।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় অর্গানাইজার্স সোসাইটির সিনিয়র সদস্য এবং বই রিভিউ প্রতিযোগিতার কো-অর্ডিনেটর আবু সায়েম দোসর বলেন, করোনায় ঘরে বসে অনেকে অলস সময় কাটাচ্ছেন। তাই তাদের সময়কে কাজে লাগানোর জন্যই এ উদ্যোগ গ্রহণ। গত ৯ থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত অনলাইনে বিভিন্ন বইয়ের রিভিউ আহ্বান করা হয়। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা স্বতঃস্ম্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করে এই প্রতিযোগিতায়। অসাধারণ সব বইয়ের চমৎকার রিভিউ লিখে জমা দেন বইপ্রেমী শিক্ষার্থীরা। সঙ্গে থাকে সেই বইয়ের কিছু অনবদ্য ছবি। সেখানে পাঠকদের মূল্যবান মতামতও পাওয়া যায়। এরপর শতাধিক রিভিউ বিচারকদের হাতে বিচারকার্যের জন্য চলে যায়। বিচারকদের নম্বর এবং পাঠকদের মূল্যবান ভোটের মাধ্যমে বাছাই করা হয় 'সেরা পাঁচ' অবেক্ষক। পাশাপাশি আরও ৫ জন অবেক্ষককে দেওয়া হয় 'অনারেবল মেনশন' সম্মাননা। গত ৪ জুলাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অর্গানাইজার্স সোসাইটির সদস্য জয়তু কুমার মণ্ডলের সঞ্চালনায় সরাসরি ফলাফল ঘোষণা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে অর্গানাইজার্স সোসাইটির পক্ষ থেকে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন বাকৃবির ভেটেরিনারি অনুষদের সহযোগী অধ্যাপক ড. আফরিনা মুশতারি। বিচারকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শিহাব সাকিব ঈশান এবং বাকৃবির দু'জন সাবেক ছাত্র মাহাদি হাসান রাতুল ও সাদ আহমেদ শাকিল। ফলাফলে মোট দশজনের নাম ঘোষণা করা হয়। ফলাফলে সেরা পাঁচে জায়গা করে নেন শাম্মি আক্তার, আকিকুর রেজা, সাদিয়া ইসলাম সিনজা, ইফতেখার নাঈম ও রশীদ আরিফ। পাশাপাশি 'অনারেবল মেনশন' অর্জন করেন আশিকুজ্জামান আবীর, নাফিউল ইসলাম, মাহফুজ টুটুল, তাহুরা স্মৃতি ও মাশফিয়া রহমান। উপহার হিসেবে মোট ১০ জন অবেক্ষকের হাতে পৌঁছে যায় চমৎকার কিছু বই।

তিনি আরও জানান, বাউওএস সংগঠনের সদস্য তাহমিদ হাসানের সম্পাদনায় প্রতিযোগীদের লেখা সব রিভিউ একসঙ্গে নিয়ে একটি ই-বুক তৈরি করা হয়েছে, যা বাংলাদেশে প্রথম বই রিভিউ সংবলিত একটি প্রকাশনা। প্রতিযোগিতার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই আনন্দ প্রকাশ করেন এবং এমন উদ্যোগের প্রশংসা করেন।

অর্গানাইজার্স সোসাইটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, বছরজুড়েই এমন অনেক আয়োজন থাকবে তাদের পক্ষ থেকে। এসব আয়োজনের মধ্য দিয়েই আস্তে আস্তে দক্ষ সংগঠক তৈরির প্রক্রিয়া চলমান থাকবে। পাশাপাশি আগ্রহী ছাত্রছাত্রীদের জন্য বিভিন্ন কর্মশালার ব্যবস্থাও থাকবে। আরও জানায়, বিশ্ববিদ্যালয় জীবন থেকেই একজন ছাত্র যেন নেতৃত্বের গুণাবলি বিকশিত করতে পারে সে সুযোগ দেওয়ার লক্ষ্যেই এই সংগঠনের পথচলা শুরু, যা সামনে আরও বড় পরিসরে সবার মাঝে প্রকাশিত হবে। নির্দিষ্টভাবে দক্ষতা উন্নয়নের জন্য নিয়োজিত এমন একটি সংগঠন 'বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় অর্গানাইজার্স সোসাইটির' পাশে থাকার জন্য কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন সংগঠনটির সদস্যরা।া