ক্যাম্পাস

ক্যাম্পাস

ইউরোপের তিন দেশে পড়াশোনা

প্রকাশ: ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

বিদেশে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করা আজকাল অনেক শিক্ষার্থীর স্বপ্ন। সঠিক পরিকল্পনার অভাব ও বাস্তব জ্ঞান না থাকার কারণে এই স্বপ্ন মাঝে মধ্যে দুঃস্বপ্নে পরিণত হয়। বিদেশে পড়াশোনা করতে চাইলে প্রয়োজনীয় বিষয়গুলো সম্পর্কে সঠিক ধারণা থাকতে হবে। ইউরোপের মধ্যে সুইডেন, জার্মানি এবং বেলজিয়াম এই তিনটি উন্নত দেশ। এই তিন দেশের উচ্চশিক্ষা নিয়ে লিখছেন বেলজিয়াম থেকে মাহমুদ কায়সার

বিদেশে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করা আজকাল অনেক শিক্ষার্থীর স্বপ্ন। সঠিক পরিকল্পনার অভাবে ও বাস্তব জ্ঞান না থাকার কারণে এই স্বপ্ন মাঝে মধ্যে দুঃস্বপ্নে পরিণত হয়। বিদেশে পড়াশোনা করতে চাইলে প্রয়োজনীয় বিষয়গুলো সম্পর্কে আপনার সঠিক ধারণা থাকতে হবে।

বাংলাদেশ থেকে বেশির ভাগ শিক্ষার্থী বৃত্তি নিয়ে বিদেশে পড়তে যেতে যান। কেউ স্নাতক পড়ার সময়ে ক্রেডিট ট্রান্সফার করেন। কেউ স্নাতকোত্তর অথবা পিএইচডি করতে যান। অনেকে উচ্চ মাধ্যমিক শেষ করেও বিদেশে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের জন্য যান। নিজেকে স্ট্যান্ডার্ড মানে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে বিদেশে উচ্চশিক্ষার বিকল্প নেই। তবে শুধু বিদেশ হলেই হলো না, শিক্ষার মানের বিষয়টি মাথায় রাখা উচিত।

ইউরোপের মধ্যে সুইডেন, জার্মানি এবং বেলজিয়াম এই তিনটি উন্নত দেশ।

দেশের বাইরে উচ্চশিক্ষার দীর্ঘমেয়াদি প্রস্তুতি আছে। তাই আগে থেকেই জেনেশুনে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়ে অগ্রসর হওয়া ভালো।



জার্মানি

জার্মানির বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে চান? কোথায় শুরু করবেন? কী কী লাগবে? বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার উপায় কী? কোর্স ফি এবং থাকা-খাওয়ার জন্য কত অর্থের প্রয়োজন? এমন অনেক প্রশ্নের বিস্তারিত জবাব পাবেন ংঃঁফু-রহ-মবৎসধহু.ফব এই ওয়েবসাইটে। রয়েছে জার্মানিতে উচ্চশিক্ষা ব্যবস্থার কাঠামো সম্পর্কে অনেক মূল্যবান তথ্য। জার্মানির দৈনন্দিন জীবনযাত্রার অনেক বৈশিষ্ট্য সম্পর্কেও অনেক কিছু জানতে পারবেন এই একটিমাত্র ওয়েবসাইটে।

জার্মানিতে উচ্চশিক্ষার প্রায় ৩০০ ইনস্টিটিউশন রয়েছে। এর মধ্যে ৮২টি বিশ্ববিদ্যালয়, ১৩৬টি অ্যাপ্লায়েড বিশ্ববিদ্যালয় এবং মিউজিক ও ফাইন আর্ট বিষয়ক ৪৬টি কলেজ রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানে ২০ লাখ ছাত্রছাত্রীর মধ্যে ১২ শতাংশ বিদেশি।

প্রথমত, অ্যাপ্লায়েড বিশ্ববিদ্যালয়। যেখানে ছাত্রদের মূলত চাকরি অরিয়েন্টেড বিষয়গুলোকে প্রাধান্য দেওয়া হয়। গবেষণামূলক কাজ এখানে হয় না বললেই চলে।

দ্বিতীয়ত, টেকনিক্যাল বা প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, যেখানে প্রকৌশলসহ বিজ্ঞান বিভাগের বিষয়গুলো পড়ানো হয়। পাশাপাশি রয়েছে ব্যাপক গবেষণামূলক প্রকল্প।

মিউনিখ লুদভিগ ম্যাক্সিমিলিয়ান ইউনিভার্সিটি

জার্মানির সবচেয়ে খ্যাতনামা ইউনিভার্সিটির মধ্যে অন্যতম লুদভিগ ম্যাক্সিমিলিয়ান ইউনিভার্সিটি। অবস্থান বাভারিয়ান রাজ্যের প্রাণকেন্দ্র মিউনিখে। ১৪৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত এই ইউনিভার্সিটি জার্মান ভাষার পাশাপাশি ইংরেজি ভাষায় অনেক কোর্স অফার করে থাকে। বর্তমানে এখানে ১২৫টি দেশের সাত হাজারের অধিক ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্ট পড়াশোনার সুযোগ পাচ্ছেন। ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্টের শতকরা হিসেবে যা সর্বোচ্চ। দেশি এবং ইন্টারন্যাশনাল সর্বমোট ৫২ হাজার স্টুডেন্ট এখানে অধ্যয়নরত। ন্যাচারাল সায়েন্সে যেমন- বায়োলজি ও ফিজিক্সের জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয়।

www.en.uni-muenchen.de

টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি অব মিউনিখ

ইউরোপের টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটির মধ্যে অন্যতম। কৃষিবিজ্ঞান এবং কম্পিউটার সায়েন্সে টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি অব মিউনিখ বিখ্যাত। ৫০ হাজারের বেশি স্টুডেন্ট এখানে অধ্যয়নরত। বিশ্বের ১৪০টি দেশ থেকে শতকরা ২৪ ভাগ ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্ট নিয়ে টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি অব মিউনিখ ইন্টারন্যাশনাল ফোকাসে বেশ শক্ত অবস্থানে রয়েছে।www.tum.de

হাইডেলবার্গ ইউনিভার্সিটি

১৩৮৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ইউনিভার্সিটি অব হাইডেলবার্গ। জার্মানির সবচেয়ে প্রাচীনতম ইউনিভার্সিটি এটি। ৩০ হাজার স্টুডেন্টের শতকরা ২৫ ভাগ ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্ট। অধিকাংশ কোর্স জার্মান ভাষায় হলেও ইংরেজি ভাষায়ও বেশ কিছু কোর্স রয়েছে। স্পেস সায়েন্স, নিউরোসায়েন্স এবং ফিজিক্সের জন্য ইউনিভার্সিটি অব হাইডেলবার্গ জনপ্রিয়।www.uni-heidelberg.de/en 




বেলজিয়াম

বেলজিয়াম ইউরোপের সুন্দর একটি দেশ। পশ্চিম ইউরোপের সেনজেনভুক্ত ছোট এই দেশটির রাজধানী ব্রাসেলস। দেশটিতে রয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদর দপ্তরসহ নানা গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের প্রধান অফিস। মূলত কম খরচে বিশ্বমানের শিক্ষা গ্রহণ এবং কাজের প্রচুর সুযোগ থাকায় দেশটিতে পাড়ি জমাচ্ছেন অসংখ্য শিক্ষার্থী। ছোট এই দেশটির অফিশিয়াল ভাষা ফ্রেঞ্চ, ডাচ ও জার্মান। সুতরাং আপনি যদি বেলজিয়ামে যেতে আগ্রহী হয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ইংরেজি ভাষার পাশাপাশি অন্য ভাষায়ও দক্ষতা অর্জন করতে হবে।পশ্চিম ইউরোপের সেনসেনভুক্ত ছোট এই দেশটির রাজধানী ব্রাসেলস।

শিক্ষার মান ও গ্রহণযোগ্যতা

বেলজিয়ামের শিক্ষার মান খুবই উন্নত এবং এর ডিগ্রি আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। বস্ত্র, স্থাপত্য, আইটি, স্বাস্থ্য ও বিজনেস রিলেটেড কোর্সের জন্য দেশটি খুবই ভালো। উচ্চতর গবেষণার জন্য দেশটিতে অনেক সুযোগ রয়েছে। বেলজিয়ামে অনেক ইউনিভার্সিটি রয়েছে- যেগুলোর র‌্যাংকিং বেশ ভালো। বেলজিয়ামের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোয় সাধারণত ডাচ্‌ ভাষায় পড়াশোনা করানো হয়। তবে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ইংরেজিতে পড়াশোনা করা যায়।

আবেদনের প্রক্রিয়া

বেলজিয়ামে বছরে সাধারণত একবার আবেদন করা যায়। বিশ্ববিদ্যালয়ভেদে সেপ্টেম্বর থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত আবেদন করার সুযোগ থাকে শিক্ষার্থীদের। আবেদন করার জন্য অবশ্যই শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে ভর্তির তারিখ দেখতে হবে।

[বাকী অংশ আগামী সংখ্যায়]



জার্মানি

ইউরোপের অন্যতম উন্নত একটি দেশ জার্মানি। জার্মানিতে উচ্চশিক্ষার প্রায় ৩০০ ইনস্টিটিউশন রয়েছে। এর মধ্যে ৮২টি বিশ্ববিদ্যালয়, ১৩৬টি অ্যাপ্লায়েড বিশ্ববিদ্যালয় এবং মিউজিক ও ফাইন আর্ট বিষয়ক ৪৬টি কলেজ রয়েছে।



সুইডেন

উত্তর ইউরোপে বাল্টিক সাগর তীরের দেশ সুইডেন। পৃথিবীর রাজনীতিতে শান্তির দেশ হিসেবে পরিচিত। এই দেশ জ্ঞান-বিজ্ঞানে বহুধা সমৃদ্ধ। অত্যন্ত উঁচুমানের গবেষণার কারণে এখানকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো উচ্চশিক্ষার আধার।



বেলজিয়াম

বেলজিয়াম ইউরোপের সুন্দর

একটি দেশ। মূলত কম খরচে বিশ্বমানের শিক্ষাগ্রহণ এবং কাজের প্রচুর সুযোগ থাকায় দেশটিতে পাড়ি জমাচ্ছেন অসংখ্য শিক্ষার্থী।