ক্যাম্পাস

ক্যাম্পাস

নিজেকে মেলে ধরো

প্রচ্ছদ

প্রকাশ: ১৯ অক্টোবর ২০২০

গোলাম কিবরিয়া

বর্তমান সময়ে একজন শিক্ষার্থী পড়াশোনার পাশাপাশি বিভিন্ন কাজে দক্ষ হয়ে থাকে। নিত্যনতুন ভাবনা যোগ করে নিজেকে করে তোলে অনন্য। বিশ্বব্যাপী তরুণদের এসব ভাবনাকে অনুপ্রাণিত করতে এবং এগিয়ে নিতে বিভিন্ন সংগঠন বা সংস্থা ফান্ড দিয়ে থাকে। আজ থাকছে এমন কিছু ফান্ডের তথ্য


উদ্ভাবনীমূলক কাজে অনুদানের জন্য আবেদন

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ক্ষেত্রে উদ্ভাবনীমূলক কাজে উৎসাহ দেওয়ার জন্য ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে অনুদান প্রদান করবে বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ মন্ত্রণালয়। আপনার যদি নিজস্ব কোনো প্রকল্প থাকে।

সুযোগ-সুবিধা

ছোট প্রকৃতির উদ্ভাবনী কাজের প্রকল্পের জন্য সর্বোচ্চ পাঁচ লাখ টাকা দেওয়া হবে।

মধ্যম প্রকৃতির উদ্ভাবনী কাজের প্রকল্পের জন্য পাঁচ লাখ এক থেকে ১০ লাখ টাকা দেওয়া হবে।

বড় ধরনের উদ্ভাবনী কাজের প্রকল্পের জন্য ১০ লাখ এক থেকে ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত দেওয়া হবে।

আইসিটি বিভাগ আয়োজিত ইভেন্ট-উৎসবে পুরস্কারপ্রাপ্ত বিভিন্ন উদ্ভাবনীমূলক প্রকল্পে অনুদান প্রদানে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

আবেদনের যোগ্যতা : আইসিটি খাতে দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখতে সক্ষম এমন উদ্ভাবনীমূলক প্রকল্প হতে হবে।

আইসিটি খাতে দেশের জনসেবায় অবদান রাখতে সক্ষম এমন উদ্ভাবনীমূলক প্রকল্প হতে হবে।

আইসিটি শিল্পের বিকাশে ভূমিকা রাখতে সক্ষম এমন উদ্ভাবনীমূলক প্রকল্প হতে হবে।

অভিনব উদ্ভাবনের মাধ্যমে নতুন সেবা সৃষ্টি করতে সক্ষম এমন উদ্ভাবনীমূলক প্রকল্প হতে হবে।

যেসব স্থানের প্রার্থীদের জন্য প্রযোজ্য :শুধু বাংলাদেশিদের জন্য প্রযোজ্য।

বিস্তারিত: http://ims.ictd.gov.bd/

ন্যাশনাল জিওগ্রাফিকে প্রস্তাবনা জমা দিয়ে ১ লাখ ডলার

দ্য ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক বিগ ক্যাট ইনিশিয়েটিভ বৃহৎ আকারের প্রজাতিকে সংরক্ষণের সুবিধা দেওয়ায় গতিশীল, নিয়ন্ত্রণ করতে কাজ করছে। এ অনুদানের লক্ষ্য হলো সেসব প্রজেক্ট চিহ্নিত করা, যেগুলো বনের আফ্রিকান বিগ ক্যাট বিলুপ্তি রোধে সহায়তা করবে। প্রজেক্টগুলো জীববৈজ্ঞানিক বৈচিত্র্যের ধারণা উন্নত করবে- যার মধ্যে থাকবে জীবনের ইতিহাস, বিপ্লব, বাস্তুসংস্থান এবং বাসস্থান ব্যবস্থা।

আবেদনের যোগ্যতা

শুধু একটি প্রজেক্টের জন্য আপনি টিম লিডার হিসেবে একটি প্রপোজাল সাবমিট করতে পারেন। আগের যে কোনো অনুদান যেখানে আপনি কোনো নতুন প্রজেক্টে কাজ করার জন্য আবেদন করেছিলেন তার ফাইনাল রিপোর্ট অবশ্যই সাবমিট করতে হবে। সংগঠনগুলো অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারে। এ ক্ষেত্রে ওই সংগঠনের পক্ষ থেকে যে প্রজেক্টটি পরিচালিত করবে, সে ব্যক্তি আবেদন করতে পারবেন। তবে অনুদানের সব প্রয়োজনীয়তা পূরণ করতে হবে। শিক্ষার্থীদের তাদের উপদেষ্টার নাম সাবমিট করা উচিত নয়। এ প্রজেক্টটি চালানোর জন্য দায়িত্ববান ব্যক্তিটির আবেদন করা উচিত এবং অ্যাপ্লিকেশন লেখা উচিত। একটি অ্যাপ্লিকেশন সাবমিট করার আগে সব আবেদনকারীকে নূ্যনতম ১৮ বছরের হতে হবে। যদি আপনার পাঁচ বছরের বেশি ফুলটাইম কাজের অভিজ্ঞতা, আপনার প্রজেক্ট ফোকাসের ফিল্ডে পেশাগত অভিজ্ঞতা থাকে তাহলে আপনি সম্প্রতি ক্যারিয়ার অনুদানের জন্য যোগ্য হবেন না।

আপনার প্রপোজালের সঙ্গে একটি বাজেট পেশ করতে হবে। সম্প্রতি ক্যারিয়ার অনুদানের জন্য আবেদনকারীদের একজন অ্যাডভাইজার, মেন্টর বা সুপারভাইজারের নাম এবং যোগাযোগের নম্বর দিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে আবেদনের সব বিষয় ইংরেজিতে লিখতে হবে। আবেদনের শেষ তারিখ : অক্টোবর ২১, ২০২০www.nationalgeographic.org /funding-opportunities/ 

আহা! অ্যাওয়ারনেস উইথ হিউম্যান অ্যাকশন

'আহা! অ্যাওয়ারনেস উইথ হিউম্যান অ্যাকশন' প্রকল্পটি পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ ও বৃহত্তর দক্ষিণ এশিয়ায় কভিড-১৯ মহামারি পরিস্থিতিতে প্রতিকূলতা প্রতিহত করে সামাজিক সংহতি ও ঐক্য স্থাপনে অবদান রাখছে। এ প্রকল্পের সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য হলো ধর্মীয় নেতা, নারী বা যুব নেতৃত্বকে কাজে লাগিয়ে যে উদ্যোগগুলো কভিড-১৯ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি এবং একই সঙ্গে গঠনমূলকভাবে যে কোনো ধরনের বৈষম্য, হেইট স্পিচ (ঘৃণাবাহী বক্তব্য), কোনো নির্দিষ্ট সম্প্রদায়ের প্রতি বিদ্বেষ ছড়ানোকে প্রতিহত করার কাজ করে এবং সেই উদ্যোগগুলোর প্রসারে কাজ করা। কমিউনিটি ইনফু্লয়েঞ্জারদের মাধ্যমে শান্তি ও সংহতির সঠিক বার্তাটি ছড়িয়ে দেওয়াই এ প্রকল্পের কাজ। 'আহা' উদ্যোগের আওতায় বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানে ব্যক্তির ক্ষেত্রে পাঁচ হাজার ইউরো এবং সংস্থার ক্ষেত্রে ১০ হাজার ইউরো পর্যন্ত অনুদান দেওয়া হবে। এ ছাড়া সংস্থাগুলো আঞ্চলিক স্তরের উদ্যোগগুলোকে সাহায্য করার জন্য পাঁচ হাজার ইউরো পর্যন্ত ক্ষুদ্র অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারবে। অনুদানপ্রাপ্তরা বছরব্যাপী প্রতি মাসে পিয়ার-লার্নিং পদ্ধতির মাধ্যমে ভার্চুয়াল ক্যাপাসিটি বিল্ডিং প্রক্রিয়ার অংশ হয়ে দক্ষতা বৃদ্ধি করবে। এমনকি ডিজিটাল ক্যাপাসিটি উন্নয়নের জন্যও বাড়তি সাহায্যের জন্য অংশগ্রহণকারীরা আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ সময় ২০ অক্টোবর, মঙ্গলবার বাংলাদেশের সময় বিকেল ৩টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত।

ইংরেজিতে আবেদনপত্র পূরণ করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। প্রজেক্টের বিস্তারিত উত্তরগুলোর ক্ষেত্রে প্রয়োজনে বাংলা ব্যবহার করতে পারেন।

বিস্তারিত: https://www. peacemakersnetwork.org/call-for- applicants-aha-small-grants- and-capacity-building-programme/