বিশ্ব ফুটবলে ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের বর্তমান অবস্থান ১৮৮। কিন্তু যখন বাংলাদেশেরই এক মেয়ে ব্রিটিশ ফুটবল দলের সহকারী কোচ হয়ে দল সামলান, শুনতে কেমন অবাক লাগে না! অবাক হলেও এটাই সত্য। এই অসম্ভবকে সম্ভব করেছেন ফুটবল অনুরাগী তাহিরা ইসলাম। বর্তমানে তিনি ইংল্যান্ডের কটেনহ্যাম ইউনাইটেড কোল্টস ফুটবল ক্লাবের অনূর্ধ্ব-১৬ নারী দলের সহকারী কোচ হিসেবে কাজ করছেন।

তাহিরার জন্ম এবং বেড়ে ওঠা ঢাকায়। ২০১৭ সালে উচ্চশিক্ষার জন্য ইংল্যান্ডে পাড়ি জমান। কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে লেখাপড়া করলেও ফুটবলের প্রতি ছিল অন্যরকম আকর্ষণ। শিক্ষার্থী হলেও ফুটবলের প্রতি ঝোঁক ছিল সব সময়ই। ফলে সুযোগ পাওয়া মাত্রই লেভেল-১ কোচিং কোর্স করে ফেলেন। তাহিরার ভাষায়, '২০১৯ সালের ডিসেম্বরে ইংলিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের লেভেল-১ কোচিং কোর্স সম্পন্ন করি এবং এর পরের বছর কটেনহ্যাম ইউনাইটেড কোল্টসে যোগ দিই। এই পেশায় ক্যারিয়ার গড়তে নারীরা বিশেষত মুসলিম নারীদের খুব একটা দেখা যায় না। ফুটবল দারুণ এক দলীয় প্রচেষ্টার খেলা। আমি মনে করি, বর্তমানে বিশ্বজুড়ে যে বিভেদের দেয়াল তৈরি হয়েছে মানুষে মানুষে- এই বিভেদ, দূরত্ব ঘুচিয়ে দিতে পারে ফুটবল।'

প্রথমদিককার কাজের অভিজ্ঞতা জানিয়ে তাহিরা বলেন, 'শুরুতে একটু কেমন যেন লাগত। আমার সহকর্মীরা সবাই আমার চেয়ে অনেক বেশি অভিজ্ঞ। তারা দীর্ঘদিন ফুটবল খেলেছেও। তাদের সহযোগিতায় আমি পরিশ্রমের সঙ্গেই দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি।'

কটেনহ্যাম ইউনাইটেড কোল্টসের প্রধান কোচ ডেভিড বার্কেট তাহিরা সম্পর্কে ক্লাবের ওয়েবসাইটে লিখেছেন, 'আমাদের অনূর্ধ্ব-১৬ নারী দলের অংশ হিসেবে তাহিরাকে স্বাগত জানাচ্ছি। বর্তমানে আমাদের এখানে কোনো নারী কোচ নেই। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের নারী খেলোয়াড় এবং কোচদের অনুপ্রাণিত করতে তাহিরার এই সাহসী সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানাই।' ফুটবল প্রিয় খেলা হলেও তাহিরা অন্য সব খেলার খোঁজও রাখেন। সুযোগ পেলে এখানে অর্জিত জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা ভবিষ্যতে বাংলাদেশের ফুটবলকে এগিয়ে নিতেও ব্যয় করতে চান। া

মন্তব্য করুন