রেস্তোরাঁর আদব কেতা

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮      
ঘরের বাইরে খেতে যাওয়ার সংস্কৃতি বেশ চালু হয়েছে আমাদের দেশে। বর্তমান ব্যস্ত জীবনের সঙ্গে মিলে মিশে থাকা এ রেস্তোরাঁ সংস্কৃতিতে কিছু আদব-কায়দা অনুসরণ করলে, খাবারের সঙ্গে সঙ্গে সময়টাও কাটবে প্রশান্তিতে।

বেশ কয়েক বন্ধু কিংবা সহকর্মীর সঙ্গে রেস্তোরাঁয় খেতে গেলে আপনাদের আড্ডা যেন অন্যদের জন্য অস্বস্তির কারণ না হয় সেদিকে খেয়াল রাখুন। কথা বলুন নিম্ন স্বরে। উচ্চ স্বরে হাসি-ঠাট্টা অন্যের বিরক্তির উদ্রেক করতে পারে। খেতে বসে হঠাৎ কোনো জরুরি ফোন এলে খানিকটা দূরে গিয়ে নিচু স্বরে কথা বলুন। ওয়েটারের সঙ্গে শালীনতা ও আদব কেতা বজায় রেখে কথা বলুন। কোনো অর্ডারে সমস্যা হলে প্রথমে তা বুঝিয়ে বলুন। সমাধান না হলে রেস্তোরাঁ ব্যবস্থাপককে জানান।

খাবার মুখে দেওয়ার পর সেটি কোনো কারণে ফেলে দিতে হলে চামচে করে প্লেটের এক কোনায় বা আলাদা কোনো প্লেটে রাখুন। চামচ দিয়ে খেতে খেতে কখনোই মুখ থেকে খাবার হাতে নেবেন না। খাবার টেবিলে বসে হাঁচি বা কাশি চলে এলে নাক বা মুখের সামনে একটি রুমাল বা টিস্যু দিয়ে হাঁচি-কাশি দেওয়া উচিত। বেশকিছু রেস্তোরাঁয় আলাদাভাবে ন্যাপকিন সরবরাহ করা হয়, কয়েকটি হাতের কাছে ভাঁজ করে রাখুন। যতটুকু খেতে পারবেন ঠিক ততটুকুই খাবার তুলে নিন। অযথা বাড়তি খাবার নিয়ে জমিয়ে রাখবেন না। টেবিল চামচ, কাঁটা চামচ কিংবা ছুরি দিয়ে খাবার কেটে খাওয়ার সময় তা যেন আপনার বা পাশের কারও গায়ে ছিটকে না পড়ে সেদিকে খেয়াল রাখুন। খেতে বসে কখনোই পা নাচাবেন না। এ ছাড়াও খাওয়ার সময় তেমনভাবে যেন শব্দ তৈরি না হয় মুখে, সেদিকে নজর রাখুন। কেননা, খাওয়ার সময় মুখে তৈরি শব্দ অন্যের অস্বস্তির কারণ হতে পারে। অনেক রেস্তোরাঁয় খাওয়ার আগে বিল পরিশোধ করার নিয়ম থাকে। আবার অনেক রেস্তোরাঁয় বিল দিতে হয় খাবার শেষ করার পরে। যে রেস্তোরাঁয় যাচ্ছেন সে রেস্তোরাঁর রীতি-নীতি মেনে চলুন। যেসব রেস্তোরাঁয় বিল পরিশোধ করে টোকেন জমা দিয়ে খাবার নিতে হয় সেসব জায়গায় লাইন মেনে চলুন। একই কথা প্রযোজ্য বুফের ক্ষেত্রেও। বুফে খাওয়ার সময় যখন যেটি খাবেন ঠিক তখনই সেটি টেবিল থেকে সংগ্রহ করবেন।



লেখা : অরুণাভ নীল; ছবি : শৈলী আর্কাইভ

পরবর্তী খবর পড়ুন : খোঁজখবর

বদির তিন ভাই 'সেফহোমে'

বদির তিন ভাই 'সেফহোমে'

স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণে ইচ্ছুক ইয়াবাকারবারিরা এখন কক্সবাজারে পুলিশ হেফাজতে এক ধরনের ...

প্রবৃদ্ধির প্রথম সারিতে থাকবে বাংলাদেশ

প্রবৃদ্ধির প্রথম সারিতে থাকবে বাংলাদেশ

চলতি বছর বিশ্বের যেসব দেশে ৭ শতাংশ বা এর বেশি ...

পেশা পাল্টাচ্ছে পাঁচুপুরের কামার কুমার জেলেরা

পেশা পাল্টাচ্ছে পাঁচুপুরের কামার কুমার জেলেরা

কামারপাড়া। ভেবেছিলাম পাড়ায় ঢুকতেই হাঁপর আর লোহা পেটানোর শব্দ শোনা ...

স্বেচ্ছাশ্রমে ১০ কিলোমিটার রাস্তা

স্বেচ্ছাশ্রমে ১০ কিলোমিটার রাস্তা

'দশে মিলে করি কাজ, হারি জিতি নাহি লাজ'- এ প্রবাদটিকে ...

এমএম কলেজে নির্বাচনে বাধা গঠনতন্ত্র

এমএম কলেজে নির্বাচনে বাধা গঠনতন্ত্র

গঠনতন্ত্রের 'সামান্য বাধা'য় দেয়াল উঠেছে যশোর সরকারি মাইকেল মধুসূদন কলেজ ...

ক্রমেই বড় হচ্ছে একুশে বইমেলা

ক্রমেই বড় হচ্ছে একুশে বইমেলা

ক্রমে বিকশিত হচ্ছে প্রকাশনা শিল্প। সেইসঙ্গে প্রকাশকের সংখ্যাও বাড়ছে প্রতিবছর। ...

এক কেজি চালের দামে এক মণ ফুলকপি

এক কেজি চালের দামে এক মণ ফুলকপি

বগুড়ায় শীতকালীন সবজির বাম্পার ফলন হলেও দাম পাচ্ছেন না চাষিরা। ...

চট্টগ্রাম বন্দরের ৪ কোটি টাকাই পানিতে

চট্টগ্রাম বন্দরের ৪ কোটি টাকাই পানিতে

সাগরে ভাসমান কনটেইনার টার্মিনাল নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ অনভিজ্ঞ প্রতিষ্ঠানকে ...