শৈলী

শৈলী

ছোট চুলের যত্ন

প্রকাশ: ১২ জুন ২০১৯

চুল নিয়ে রয়েছে হাজারো প্রস্তুতি। তবে লম্বা চুলে সব সৌন্দর্য- এমন ধারণায় এসেছে পরিবর্তন। এখনকার মেয়েরা বেশ ছুরি চালিয়ে নিচ্ছে তাদের চুলে। কখনও তা ট্রেন্ডে গা ভাসিয়ে কখনও বা প্রয়োজনে। কয়েক বছর আগেও লম্বা চুল রাখা ছিল একটা ফ্যাশন। গত বছর থেকে তাতে দেখছি কিছুটা তাল বদলের পালা। এ বছরের প্রথম থেকেই ছোট চুল বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। অনেকেই নতুনত্ব খুঁজছেন চুলের ছাঁটে। মাঝখানে বেশ কিছু বছর ছোট চুলের তেমন কদর দেখা যায়নি। তবে, ফ্যাশন আসবে ঘুরেফিরে, এটাই তো রীতি।

মেয়েদের চুলে জন্য নানাবিধ স্টাইল এসেছে বাজারে। সামারে হেয়ার কাট নিয়ে সব থেকে বেশি নিরীক্ষা হয়ে থাকে। বিশ্বজুড়েই রয়েছে এমন ট্রেন্ড। বব কাটে আধুনিকা এই ধারণা বহু দিনের। বাজারে জোরেশোরে ফিরে এসছে বব। তবে এবারে এর বিভিন্নতা চোখে পড়ছে। সাইড পার্টেট ব্লান্ড বব বেশ লুফে নিচ্ছে এ সময়ের মেয়েরা। শর্ট বব একটু সাহসী হিসেবেই পরিচিত এখনও। 'চপিং ব্যাং' হেয়ার স্টাইলটি বর্তমান সময়ে জনপ্রিয়। অনেকেই মনে করেন, যাদের বড় চুল আছে, শুধু তারাই লকস কাটতে পারেন। কিন্তু তা সঠিক ভাবনা নয়। ছোটো চুলেও কায়দা করে কাটতে পারেন লকস। এর জন্য আপনাক পেছনের চুল ছোট করে লেয়ারে কাটতে হবে। পিক্সি কাট হালের ক্রেজ তৈরি করেছে। তারুণ্যের পছন্দের এ স্টাইলটি বেশ মাতিয়ে রেখেছে ফ্যাশন সচেতনদের।

আজকাল দ্য স্যাগি হেয়ার কাট খুব জনপ্রিয়। এ কাটে সামনের দিকের কয়েক গাছি চুল খানিকটা লম্বা রেখে দিতে পারেন। সেগুলো কানের দু'পাশ দিয়ে নিচের দিকে নেমে আসবে। মাঝে মধ্যেই সেগুলো গুছিয়ে নিতে পারেন আঙুলের স্পর্শে।

চুলের সৌন্দর্য নিয়ে মেয়েরা সব সময়ই সচেতন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরও বেশি আধুনিক হচ্ছেন তারা। চুলের বাহারি কাটে নারীদের সৌন্দর্য ফুটে ওঠে। কিন্তু এখনকার ব্যস্ত নারীদের দরকার চটজলদি চুলের যত্ন। আর বাইরের সূর্যের চোখ রাঙানি চুল নিয়ে বিড়ম্বনায় ফেলে দেয় অনেককেই। যাদের মাথার ত্বক ঘেমে যায় তাদের সমস্যা আরও বেশি। তাই এই গরমে চুলে দিতে পারেন নতুন কাট। তবে এ ক্ষেত্রে কিছু বিষয় রাখতে হবে মাথায়। চুলের ধরন বুঝে তবেই বেছে নিতে হবে কাট। সোজা, মোলায়েম চুল যাদের, গরমে তাদের সমস্যা বেশি। এ ধরনের চুলে সামনে ব্যাঙ্গস এবং পেছনে লং লেয়ার করে নিলে ভালো লাগবে। এমন কাটে চুল ক্লিপ বা ব্যান্ড দিয়েও আটকে রাখতে পারেন। কোঁকড়ানো ও রুক্ষ চুলের জন্য চুলের ভেতর থেকে থিনিং করে চুলের কাটে আনতে পারেন ভিন্নতা। এতে হালকা লাগবে এবং ভালো দেখাবে। আর চুলের যত্ন করতেও সুবিধা হবে। ঘাড়ের নিচ অবধি চুল রাখতে চাইলে করুন হেভি লেয়ারিং এবং সামনে ব্যাঙ্গস। যারা ঘাড়ের ওপরে চুল রাখতে চান তাদের জন্য পেছনে চুল কিছুটা ওঠানো থাকবে, বাকি চুল ব্লান্ড কাটের মতো হয়ে আসবে। আবার ব্লান্ডের সঙ্গে মিলিয়ে কানের দু'পাশ একটু লম্বা থাকবে। যারা ছোট চুল রাখতে পছন্দ করেন তাদের জন্য খুব উপযোগী এই স্টাইল।

তবে চুলে নতুন কাটের পরিকল্পনা করার সময় কিছু বিষয়ে নজর রাখুন। একজন হেয়ার স্টাইলিস্টের সঙ্গে দেখা করে জেনে নিন আপনাকে কেমন কাটে মানাবে। মুখের আকার, কাজের দুনিয়া আর বয়স বুঝে চুলের কাট বেছে নিলে অনায়াসেই মানিয়ে যাবে। মনে রাখবেন, হুজুগে চুল কাটাবেন না। আপনাকে মানাবে কি-না সেটা আগে ভাবুন। মাসে একবার চুল কাটানোর চেষ্টা করবেন। চুলে যে কাটই থাকুক না কেন, যত্ন কিন্তু চাই-ই চাই। আপনার চিরুনি পরিস্কার এবং আলাদা রাখার চেষ্টা করুন। ভেজা চুল আঁচড়াবেন না; চুলের আগা থেকে ধীরে ধীরে জট ছাড়িয়ে নিন। সবসময় হালকা করে চুল বেঁধে নিন। নিয়মিত তেল দিন। দিনে বার কয়েক আঁচড়ে নিন। উপযুক্ত শ্যাম্পু ব্যবহার করুন। কন্ডিশনিং করুন নিয়ম করে।



লেখা : নাইফা উনইসা

মডেল : মালিহা