বর্ষায় সুন্দর

প্রকাশ: ১২ জুন ২০১৯      
বছর ঘুরে চলে এসেছে রিমঝিম বর্ষার দিন। মেঘে মেঘে সারাবেলা আর যখন তখন বৃষ্টি, এভাবেই কাটছে দিন। বছরের এ সময়টাতে তাপমাত্রার পরিবর্তন হয় হুটহাট। তাই ত্বকের চাই বিশেষ যত্ন।

বর্ষাকালের রোদের প্রভাব থেকে ত্বককে সুরক্ষিত রাখতে সানস্ট্ক্রিন ব্যবহার করা গুরুত্বপূর্ণ। কোনোভাবেই এসপিএফ ৩০-এর কম সানস্ট্ক্রিন ব্যবহার করা যাবে না। বাইরে বের হওয়ার বেশ খানিকক্ষণ আগে মুখ ভালোভাবে পরিস্কার করে মুখ মুছে নিন। এবার ত্বকে ব্যবহার করুন সানস্ট্ক্রিন। ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে নিতে হবে বিশেষ যত্ন। নিয়মিত তাই মাস্ক ব্যবহার করা উচিত। আর্দ্রতার কারণে হওয়া ত্বকের তেল নিয়ন্ত্রণ করতে সপ্তাহে একবার মুলতানি মাটির মাস্ক ব্যবহার করুন, যা প্রাকৃতিকভাবে তেল শোষণ করে। মৃতকোষ দূর করতে ও লোমকূপের ময়লা দূর করতে টি ট্রি বা গ্রিন টি সমৃদ্ধ মাস্ক ব্যবহার করুন। ত্বকে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা জরুরি। কেননা, রোদ ও দূষণের কারণে ত্বক প্রাকৃতিক তেল হারায়। এসপিএফ ৩০ সমৃদ্ধ এমন 'ডে ক্রিম' ব্যবহার করুন। প্রাকৃতিক উপাদান যেমন বীজ ও ফলের তৈরি ক্রিম ব্যবহার করুন। এটা ত্বক সুগঠিত করতে ও পুনরুজ্জীবিত করতে সাহায্য করে। সংবেদনশীল অংশের প্রতি বাড়তি যত্ন নিন। ঠোঁট, চোখের চারপাশের চামড়া মুখের অন্যান্য অংশের তুলনায় পাতলা। তাই এর বাড়তি যত্নের প্রয়োজন। চোখে পানির ঝাপটা ও ঠোঁটে লিপ বাম ব্যবহার করুন। এ সময় টোনার ব্যবহার করুন। কারণ, ঘামের কারণে লোমকূপ বড় হয়ে যেতে পারে। ত্বক পরিস্কারের পরে টোনার লাগান, এটা লোমকূপ সংকুচিত রাখতে সাহায্য করে। অ্যালকোহল ছাড়া ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ গ্রিন টি টোনার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এটা ত্বকের মৃত কোষ দূর করে ত্বক টানটান রাখে, দাগ ছোপ দূর করে এবং ব্রণ দূর করে। ত্বক পরিস্কার করে নিতে হয় বারবার। সাবান ছাড়া পরিস্কারক দিয়ে মুখ ধোয়া দিনে দু'তিনবারের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখুন। এটা ত্বকের প্রয়োজনীয় তেল বজায় রেখেই ত্বক পরিস্কার করতে সাহায্য করে। ত্বকের মৃত কোষ দূর করতে এক্সফলিয়েট করা প্রয়োজন। এ ক্ষেত্রে মিহি দানার এক্সফলিয়েটর বা মৃদু রাসায়নিক পিল ব্যবহার করে ত্বককে সংক্রমণ থেকে রক্ষা করা যায়। এ সময় ভারি মেকআপ এড়িয়ে যান। বরং হালকা মেকআপ করুন। ভালো হয় যদি ভেষজ উপাদানে তৈরি প্রসাধনী ব্যবহার করা যায়। রাসায়নিক কম ব্যবহারে ত্বক থাকবে সতেজ। লোমকূপকে শ্বাস নিতে দিন। যতটা সম্ভব ত্বক রাখুন প্রলেপমুক্ত। ঠোঁটের আর্দ্রতা রক্ষায় হতে হবে সচেতন। লিপ বাম ব্যবহার করুন নিয়মিত।

নিয়মিত কাজল ব্যবহার ছাড়া সাজ সম্পূর্ণ হয় না অনেকের। পানি নিরোধক, প্যারাবেনবিহীন, খনিজ তেল বা প্যারাফিন সমৃদ্ধ কাজল ব্যবহার করুন। এতে সংক্রমণ আশঙ্কা কম। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে অবশ্যই সব মেকআপ তুলে মুখে তুলার বলের সাহায্যে গোলাপজল অথবা নাইট ক্রিম লাগিয়ে ঘুমাতে যান। প্রিয় সুগন্ধি মেখে নিতে পারেন।



লেখা : ফারহা দীবা

মডেল : তামান্না

পোশাক : সৃষ্টি

পরবর্তী খবর পড়ুন : টি-শার্টে বিশ্বকাপ

অন্যান্য