শৈলী

শৈলী


শীতের আবাহন

প্রকাশ: ০৬ নভেম্বর ২০১৯      

হাসান শাওন

মানুষ প্রকৃতি থেকে বিচ্ছিন্ন নয়। প্রকৃতির বাঁক বদলে তাই আন্দোলিত হই আমরাও। বাংলা পঞ্জিকা অনুসারে এখন চলছে হেমন্ত। গ্রামবাংলায় ফসল কাটার মৌসুম এই ঋতু। এই ফসল কার গোলায় যাবে- সে প্রশ্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক বাস্তবতার। তবে নতুন ফসলের গন্ধে যে বাংলা অঞ্চল মেতে ওঠে এ গল্প মিথ্যে নয়।

শহরে ঋতু পরিবর্তন তেমনটা টের পাওয়া যায় না। তবে রাস্তার মোড়ে মোড়ে পিঠার দোকানের উপস্থিতি বলে দেয় শীত আসছে। এই পিঠা বিক্রেতারা আসেন গ্রাম থেকে। তাদের এই ব্যবসাও মৌসুমি। শহরবাসীকে পিঠার স্বাদ দিয়ে এই ছোট ছোট উদ্যোক্তা রক্ত সঞ্চালন ঘটান গ্রামীণ অর্থনীতিতে।

শহরের তরুণরা ব্যাডমিন্টন খেলায় মাতে বছরের এ সময়টায়। ভোরের কুয়াশা আর শিশিরের আবির্ভাব শহরবাসীর নজর এড়ায় না। ঋতুর পালাবদলের এই পর্বে কেউ হয়তো হারানো দিনের জন্য বিষণ্ণ হবেন। কারও মনে পড়বে বর্ষার কথা। কেউ ভুলতে পারবেন না নীল আকাশ আর সাদা কাশফুলের শরৎকে। কিন্তু মেনে নিতে হবে। প্রকৃতিকে অগ্রাহ্য করা যায় না কোনো শক্তিতেই। বরং যে শীত অধিষ্ঠিত হচ্ছে তার সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নেওয়াই ভালো।

শীতের সময়টায় নানা উৎসব আর অনুষ্ঠান লেগেই থাকে। সেসব অনুষ্ঠানে হাজির হওয়ার একটা তাগিদ মনের ভেতর কাজ করে। নিত্যদিনের পোশাক আর সাজ-উৎসব অনুষ্ঠানের সাজ ভিন্ন। নিজেকে রূপান্তরের একটা চেষ্টা তাই এ সময়ে লক্ষ্য করা যায়। আবার কিছু নেতিবাচকতাও আছে শীতে। হঠাৎ ঋতুর পালাবদলে অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাই শীতের আগেই এর আগাম প্রস্তুতি প্রয়োজন। দরকারি শীতের পোশাক আলমারি-ওয়ার্ডরোব থেকে বের করে ফেলার সময় এখন। এ সময় দিনের বেলায় গরম থাকে। কিন্তু রাতের দিকে শীতের আবহ তৈরি হয়। তাই এখন থেকে গরম পোশাকে অভ্যস্ত হয়ে ওঠা দরকার। গোসলের সময় গরম পানি প্রয়োজন হতে পারে। শীতে অন্যতম প্রধান সমস্যা হয়ে দাঁড়ায় ত্বক ও চুলে। তাই চুলে কন্ডিশনার ও শ্যাম্পু ব্যবহারে যত্নবান হওয়ার সময় এটি। ত্বকের জন্য ব্যবহার করতে পারেন মানসম্মত লোশন।

নারীরা এই শীতে লিপস্টিক নিয়ে স্টাইলে মনোযোগী হতে পারেন। এ স্টাইলে ঠোঁটের বাইরের লাইনগুলোয় ব্যবহার করা হয় গাঢ় রং আর মাঝখানে থাকে ওই একই শেডের হালকা রং। শীতের পোশাকের সঙ্গে গাঢ় লাল রংয়ের লিপস্টিক ভালোই মানাবে যে কোনো নারীকে। অন্যভাবে ঠোঁট রাঙানোর ইচ্ছা থাকলে তাও করতে পারেন। আসুক না একটু বৈচিত্র্য! এক্ষেত্রে মেকআপ হতে হবে হালকা।

আগাম এই শীতে চুল বাঁধা যেতে পারে নানা স্টাইলে। উঁচু করে চুল উঠিয়ে খোঁপা করে নিন। এভাবে নজর কাড়তে পারেন যে কোনো অনুষ্ঠানে। নখ সাজাতে পারেন গাঢ় সবুজ, নীল, মেরুন, কালো বা লাইট রঙের নেইলপলিশে।

পুরুষরাও এখন চুল আর ত্বক নিয়ে আগের চেয়ে সচেতন। শহরে গড়ে উঠেছে অনেক মেনস পার্লার। সেখানে গিয়ে নিজের চুল আর ত্বকে বৈচিত্র্য আনতে পারেন ছেলেরা।

অনেক মেয়েই চুলে ফুল দিয়ে সাজতে ভালোবাসেন। তারা মুখের আকৃতির সঙ্গে মিলিয়ে ফুল দিয়ে চুল সাজাতে পারেন। যাদের লম্বা মুখ, লম্বা চুল তারা কানের পাশে চুলে কিছু ছোট ফুল দিয়ে সাজতে পারেন। তবে চুল যাদের বেশি লম্বা, তারা অবশ্য খোঁপায় ফুল পরতে পারেন। ছোট চুল বা গোল মুখে খোলা চুলের একপাশে একটি ফুল পরা যায়। বেলি ফুলের মালার খোঁপার সাজ আপনাকে মোহনীয় করে তুলতে পারে।

শাড়ির সঙ্গে খোঁপা, বেণি বা খোলা চুলে সব সাজেই চুলে গুঁজে দিতে পারেন ফুল। সালোয়ার-কামিজ বা ফতুয়ার সঙ্গে চুলে ফুল পরতে চাইলে চুল বাঁধলেই বেশি ভালো লাগে দেখতে। এ ক্ষেত্রে কানের পাশে ফুল গুঁজে দিতে পারেন। তাজা ফুলই না, চুলে পরার জন্য এখন পাওয়া যায় কাপড়, প্লাস্টিক ও ফাইবারে তৈরি নানা জাতের ফুল। দেখে বোঝার উপায় থাকবে না। একদম সত্যিকারের ফুলের মতোই মনে হবে এগুলোকে। তাজা ফুল না পাওয়া গেলে এগুলো দিয়েও সাজতে পারেন। তারপর বাহারি শীত পোশাক ও রকমারি সাজের সঙ্গে চুলে পরুন পছন্দসই ফুল। নিজেকে অল্প সাজে নিজেই বদলে ফেলতে পারেন এভাবে।

আবহাওয়ার পালাবদলে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়ে থাকে পরিবারের শিশুরা। ছোট্ট সোনামণির প্রতি যত্নবান হয়ে উঠুন এ সময়ে। এর অন্যথা হলে শীতজুড়ে শিশুর অসুস্থতা নিয়ে ভুগতে হতে পারে।

শীতের আগেই এ সময়ে শিশুকে গরম পানি দিয়ে গোসল করানো উচিত। বাজারে নানা ধরনের বেবি লোশন পাওয়া যায়। সেগুলো থেকে বেছে নিন মানসম্মত একটি। সন্ধ্যায় শিশুকে গরম কাপড় পরিয়ে বাসা থেকে বের হওয়া উচিত। শিশু কোনো কারণে অসুস্থ হলে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে।

এই শীত একই সঙ্গে ভ্রমণেরও মৌসুম। বাচ্চাদের স্কুল বন্ধ থাকে এ সময়ে। তাই দেশে-বিদেশে নানা দর্শনীয় স্থান থেকে ঘুরে আসতে পারেন। ভ্রমণের সময় সতর্ক থাকুন। পাহাড়, সমুদ্র, সমতল- যেখানেই ভ্রমণ করুন, সঙ্গে রাখুন ফার্স্ট এইড বক্স। প্রিয়জনদের নিয়ে এই ভ্রমণের স্মৃতি থাকবে চিরকাল। একে রাঙিয়ে রাখুন সুস্থ থেকে।

হেমন্ত মূলত নবান্ন উৎসবের ঋতু। সবারই জানা বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণ। এই হালকা হিমের সময় যেন প্রস্তুতির সময়। শুধু পোশাক, চুল ও ত্বকে নয়, জীবনের সব ক্ষেত্রে যেন পার্বণের ছোঁয়া লাগে। তাই এখনই গুছিয়ে নেওয়ার সময়। মাঙ্গলিক ঋতু টের পাওয়া যাচ্ছে প্রকৃতিতে।



মডেল ::তাসনিম নিদ্রা

ছবি ::রাহুল চৌধুরী