শৈলী

শৈলী

গায়ে হলুদের ৫ পদ

প্রকাশ: ২০ নভেম্বর ২০১৯

নাজরানা লোপা রন্ধনশিল্পী

বিয়ের আয়োজনে গায়ে হলুদ অনুষ্ঠান ঘরোয়াভাবেই করেন অনেকে। হলুদে ঘরোয়া আয়োজনে কী ধরনের খাবার রাখতে পারেন মেন্যুতে উপায় দিয়েছেন রন্ধনশিল্পী নাজরানা লোপা।

ছবি তুলেছেন ইয়াসিন আরাফাত



গরুর কুঁজ ভাজা

উপকরণ :গরুর কুঁজ আধা কেজি, আদা-রসুন বাটা এক টেবিল চামচ, পেঁয়াজ বাটা এক টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া এক চামচ, মরিচ গুঁড়া আধা চামচ, জিরা গুঁড়া আধা চামচ, তেল আধা কাপ ও লবণ স্বাদমতো। পেঁয়াজ কুচি একটি, রসুন কুচি দু-তিন কোয়া, শুকনা মরিচ কুচি দুটি ও কাঁচামরিচ কুচি দুটি।

প্রস্তুত প্রণালি :গরুর কুঁজ ফুটন্ত গরম পানিতে আস্তে আস্তে সিদ্ধ করে নিন। সিদ্ধ হয়ে গেলে পানি ঝরিয়ে নিন। ঠাণ্ডা হলে টুকরো করে নিন। এবার সব মসলা মেখে নিন। তেল গরম করে ভেজে নিন। এবার একটি প্লেটে তুলে রাখুন। ওই তেলেই পেঁয়াজ কুচি, রসুন কুচি, শুকনামরিচ কুচি ও কাঁচামরিচ কুচি দিয়ে ভেজে নিন। ভাজা হয়ে গেলে মাংসের ওপর ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।



বুখারি রাইস

উপকরণ :বাসমতি চাল চার কাপ, পেঁয়াজ কুচি একটি, টমেটো কুচি একটি, গাজর মিহি কুচি একটি, কিশমিশ দুই টেবিল চামচ, টমেটো পেস্ট এক টেবিল চামচ, রসুন মিহি কুচি তিন কোয়া, এলাচ দু-তিনটা, দারুচিনি দুই টুকরো, লবণ স্বাদমতো, বাটার এক টেবিল চামচ, তেল দুই টেবিল চামচ, অ্যারাবিক স্পাইস (ধনিয়া, জিরা, গোলমরিচ, দারুচিনি, কালো এলাচ, তেজপাতা, লবঙ্গ, শুকনা মরিচ পরিমাণমতো দিয়ে গুঁড়া করে নিন), হলুদ গুঁড়া এক চা চামচ।

প্রস্তুত প্রণালি :হাঁড়িতে বাটার ও তেল দিয়ে গরম করুন। এরপর কিশমিশ দিয়ে তিন-চার মিনিট নেড়ে উঠিয়ে রাখুন। এবার গাজর ও পেঁয়াজ কুচি দিয়ে নাড়তে থাকুন। নরম হয়ে এলে এলাচ-দারুচিনি দিন। পেঁয়াজ হালকা লাল হলে রসুন কুচি দিয়ে ভুনে নিন। এর পর টমেটো কুচি ও টমেটো পেস্ট দিয়ে নাড়তে থাকুন। লবণ ও অ্যারাবিক স্পাইস দিয়ে নেড়ে ৫ মিনিট ঢেকে রাখুন। পরিমাণমতো পানি দিয়ে গরম করুন। যখন পানি ফুটে উঠবে তখন চাল দিন। নেড়ে ঢেকে দিন। পানি শুকিয়ে গেলে কিশমিশ দিয়ে দমে রেখে দিন। এর পর নামিয়ে পরিবেশন করুন।



চাপ ভাজা

উপকরণ :গরুর পাঁজরের মাংস আধা কেজি, আদা-রসুন বাটা এক টেবিল চামচ, পেঁয়াজ বাটা এক টেবিল চামচ, গরম মসলা গুঁড়া এক চা চামচ, জায়ফল, জয়ত্রি ও শাহি জিরা গুঁড়া এক চামচ, লবণ স্বাদমতো, খোসাসহ পেঁপে বাটা এক চামচ ও তেল আধা কাপ।

প্রস্তুত প্রণালি :তেল বাদে সব উপকরণ একসঙ্গে মেখে ৫-৬ ঘণ্টা মেরিনেট করুন। এবার প্যানে তেল দিয়ে অল্প আঁচে মাংস দিয়ে ভাজতে থাকুন। মাংস সিদ্ধ হয়ে ভাজা হয়ে এলে চুলা থেকে নামিয়ে পরিবেশন করুন।



কড়াই বিফ

উপকরণ :গরুর মাংস এক কেজি, টক দই আধা কাপ, টমেটো টুকরো কাটা চারটি, পেঁয়াজ কুচি এক কাপ, আদা বাটা এক টেবিল চামচ, রসুন বাটা এক টেবিল চামচ, শুকনা মরিচ কুচি ৪-৫টি, হলুদ গুঁড়া এক চামচ, মরিচ গুঁড়া এক চামচ, তেল আধা কাপ, এলাচ দুটি, দারুচিনি দুই টুকরো, জায়ফল, জয়ত্রি গুঁড়া আধা চামচ, ধনে গুঁড়া এক চা চামচ, লবণ স্বাদমতো, ধনেপাতা কুচি সাজানোর জন্য, কাঁচামরিচ ৭-৮টি।

প্রস্তুতি প্রণালি :পেঁয়াজ কুচি, টমেটো বাদে সব উপকরণ মাংসের সঙ্গে মেখে ম্যারিনেট করুন এক ঘণ্টা। এবার প্যানে তেল দিয়ে পেঁয়াজ কুচি দিন। পেঁয়াজ লাল হয়ে এলে মাংস দিয়ে কষিয়ে নিন। পরিমাণমতো পানি দিন। মাংস সিদ্ধ হয়ে এলে কাঁচামরিচ ও টমেটো দিন। মাখা মাখা হয়ে এলে নামিয়ে নিন। ধনেপাতা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।



ব্রেড পুডিং

উপকরণ :দুধ দেড় লিটার, ডিম চারটি, পাউরুটি স্লাইস আটটি, কাঠবাদাম কুচি ৮-১০টি, পেস্তা বাদাম কুচি ৮-১০টি, চিনি আধা কাপ বা প্রয়োজনমতো, বাটার প্রয়োজনমতো, কিশমিশ এক টেবিল চামচ, ভ্যানিলা এক চা চামচ, এলাচ ও দারুচিনি গুঁড়া আধা চা চামচ।

প্রস্তুত প্রণালি :দুধ-চিনি দিয়ে জ্বাল দিয়ে দুই কাপ করে নিন। দুধ ঠাণ্ডা করে রাখুন। ডিম ভালো করে ফেটিয়ে নিন। পাউরুটির চারপাশ কেটে রাখুন। এবার পাউরুটির স্লাইসে বাটার মেখে রাখুন। দুধ, ডিম, ভ্যানিলা, এলাচ, দারুচিনি গুঁড়া একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। এবার একটি পাত্রে বাটার মেখে নিন। সামান্য চিনি দিয়ে কারামেল করে নিন। পাউরুটির স্লাইসগুলো বিছিয়ে নিন। এবার মিশ্রণটি পাউরুটির ওপর আস্তে আস্তে ঢেলে দিন। পাউরুটি নরম হলে ফুটন্ত গরম পানিতে পাত্রটি বসিয়ে স্টিম করে নিন। আধা ঘণ্টা পর নামিয়ে নিন। ঠান্ডা হলে ঢেলে পরিবেশন করুন।