শৈলী

শৈলী


প্রাকৃতিক উপায়ে ত্বকের যত্ন

প্রকাশ: ১৮ মার্চ ২০২০      

বন্যা সরকার

একেক ঋতুতে একেক সমস্যার সম্মুখীন হয় ত্বক। এ নিয়ে ভয়ের কারণ নেই। সমস্যার সমাধানও আছে অনেক। একটু যত্নশীল হলেই সব সমস্যার সমাধান হবে সহজে...



ঋতু যতই সুন্দর হোক না কেন, ত্বকের সমস্যা কোনো ঋতুতেই এড়ানো সম্ভব নয়। মানুষের ত্বক খুবই কোমল হয়ে থাকে। তাই সামান্য পরিবর্তনে চট করে মানিয়ে উঠতে পারে না।

একেক ঋতুতে একেক সমস্যার সম্মুখীন হয় ত্বক। এ নিয়ে ভয়ের কারণ নেই। সমস্যার সমাধানও আছে অনেক। একটু যত্নশীল হলেই সব সমস্যার সমাধান হবে সহজে।

নিচের টিপসগুলো মেনে চললে ত্বক ভালো রাখা সম্ভব।

ত্বকের যত্নে পানির কোনো তুলনাই হয় না। প্রচুর পরিমাণে পানি খেতে হবে এবং বারবার পানি দিয়ে মুখ ধুতে হবে। কেমিক্যাল প্রোডাক্টস ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ, তাতে রয়েছে নানা ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। ন্যাচারাল প্রোডাক্ট ত্বকের সমস্যার সমাধান করতে পারে আরও বেশি এবং কোনো ক্ষতি ছাড়াই।

ত্বককে আমরা প্রধানত তিনটি ধরনে বিভক্ত করতে পারি- নরমাল, শুস্ক ও তৈলাক্ত। কিছু মানুষের আবার মিশ্র ত্বকও হয়ে থাকে। তবে সময়ের সঙ্গে ত্বকের ধরন অনেকটাই বদলে যায়। যেমন- তরুণ-তরুণীদের ত্বক বয়স্কদের তুলনায় অনেকাংশে একটু সেনসিটিভ হয়ে থাকে।

গরমকালে ত্বকের সবচেয়ে বড় শত্রু রোদ। রোদে পোড়া দাগ দূর করতে অনেক সময় লেগে যায়। তবে আমরা একটু সচেতন হলেই কষ্ট বা দাগ কোনোটাই থাকবে না।

এ সময়ে ত্বকের যত্নে ফলের কোনো তুলনা হয় না। বেশি বেশি বিভিন্ন ধরনের ফল খেলে আপনার ত্বক নানা সমস্যা থেকে মুক্ত থাকবে। যেমন- পানিযুক্ত ফল ত্বকের জন্য খুবই উপকারী।

বাইরে বেরোলে সব সময় ছাতা, সানগ্লাস, স্কার্ফ বা টুপি ব্যবহার করতে পারেন। যাদের ত্বকে অল্পতেই রোদে পোড়া ভাব দেখা দেয়, তাদের উচিত বাসায় ফিরেই ত্বকের কিছুটা যত্ন নেওয়া। যেমন- টমেটোর রস মেখে কিছুক্ষণ রেখে ধুয়ে ফেলুন। একইভাবে শসার রস ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে পাকা কলার গুণও কিন্তু অতুলনীয় এই রোদে পোড়া ত্বক উদ্ধার করতে। অ্যালার্জি না থাকলে অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করতে পারেন অনায়াসে।

মুখমণ্ডলের সবচেয়ে সংবেদনশীল অংশ হচ্ছে আমাদের চোখের চারপাশের অংশটুকু। চোখের পাশের কালো দাগ দূর করতে আলুর রস, শসা কুচি ব্যবহার করতে পারেন।

সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি আমাদের ঠোঁটের সৌন্দর্য নষ্ট করে এবং শুস্ক করে ফেলে। তাই লিপবাম ব্যবহার করে ঠোঁটকে সূর্য থেকে রক্ষা করা সম্ভব। তবে প্রাকৃতিক উপাদানমিশ্রিত লিপবামই ব্যবহার করা উচিত। যেমন :ক্যারোট সিড অয়েল, কাঠবাদাম তেল ও সিয়া বাটার অয়েল।

নাকের ব্ল্যাক হেডস ও হোয়াইট হেডস দূর করতে টমেটোর সঙ্গে চিনি দিয়ে স্ট্ক্র্যাব তৈরি করে ব্যবহার করতে পারেন অথবা লেবুর সঙ্গে চিনি মিশিয়ে স্ট্ক্র্যাব তৈরি করে নাকে আলতো ভাবে ঘষে কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলতে পারেন। এতে উপকার পাবেন।

রাতে ঘুমানোর আগে ভালোভাবে হাত-মুখ ধুয়ে মুখের ত্বকে হালকা করে গোলাপজল এবং হাতে-পায়ে, ঘাড়ে ও শরীরে অলিভ অয়েল ব্যবহার করতে পারেন।



ছবি :শৈলী আর্কাইভ