রোজার মাধ্যমেই শুরু হয়ে গেছে ঈদের প্রস্তুতি। এই উৎসবে নতুন পোশাক না হলে কি আর জমে। কিন্তু এরই মধ্যে বেড়েছে করোনার প্রকোপ। তাই বলে কি আর কেনাকাটা বন্ধ থাকবে! দেশীয় ফ্যাশন হাউসগুলো হাজির হয়েছে অনলাইন স্টোর নিয়ে। শোরুমের পাশাপাশি ঘরে বসেও কিনতে পারবেন নতুন পোশাক। অনলাইন কেনাকাটায় বেশ জমে উঠেছে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো। যার মধ্যে এগিয়ে আছে ইভ্যালি, দারাজ, আলিশামার্ট, আজকের ডিল এবং প্রিয়শপ। ই-কমার্সের পাশাপাশি ফ্যাশন হাউসগুলো নিয়ে এসেছে নিজস্ব ওয়েব স্টোর। যারা ওয়েবসাইট করেননি, তারাও ফেসবুক পেজের মাধ্যমে খুলেছেন পোশাকের নতুন সম্ভার।

আড়ং : তরুণ ফ্যাশনকে প্রাধান্য দিতে আড়ং প্রতিনিয়ত যুক্ত করছেন নিত্যনতুন ডিজাইনের পোশাকের সম্ভার। করোনাকালে গ্রাহকদের শোরুমে গিয়ে যেন বাড়তি ঝামেলা পোহাতে না হয় তাই তাদের রয়েছে অনলাইন স্টোর। প্রতিবারের মতো এবারও ঈদের এসেছে তাদের নতুন কালেকশন। শোরুমের পাশাপাশি এসব পণ্য কেনা যাবে তাদের অনলাইন স্টোর থেকে। দেশের যে প্রান্তেই থাকুন না কেন অর্ডার করার ৩ থেকে ৭ দিনের মধ্যেই পণ্য পৌঁছে দেবেন তারা। ক্যাশ অন ডেলিভারির পাশাপাশি পণ্যের মূল্যে পরিশোধ করতে পারেন যে কোনো গেটওয়ে ব্যবহার করে। ওয়েব ঠিকানা :www.aarong.com


বিশ্বরঙ :ঐতিহ্যবাহী এবং নতুন ডিজাইনের সমন্বয়ে 'বিশ্বরঙ' সাজিয়েছে ঈদ কালেকশন। শোরুমে না গিয়েও তাদের একদম শেষ কালেকশনটি পেয়ে যাবেন নতুন ওয়েবসাইটটিতে। এ ছাড়া চাইলে যে কেউ ফেসবুকে পণ্য অর্ডার করতে পারবেন। বিকাশ, রকেট এবং যে কোনো ব্যাংক কার্ডের মাধ্যমে মূল্য পরিশোধের সুযোগ থাকছে। ঢাকার বাইরে কুরিয়ারের মাধ্যমেও পণ্য ডেলিভারি দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। ওয়েব ঠিকানা :www.bishworang.com


কে কদ্ধ্যাফট :শাড়ি, সালোয়ার-কামিজ, লং-কুর্তি, রেগুলার কুর্তি, টপস-স্কার্ট, কটি, পাঞ্জাবি, শার্ট, পলোশার্ট, টি-শার্ট ও শিশুদের পোশাক রয়েছে কে কদ্ধ্যাফটের ঈদ আয়োজনে। ঘরে বসে সহজে পছন্দের পোশাকটি কিনতে নতুন সাজে সাজিয়েছে তাদের অনলাইন স্টোরটি। এ ছাড়া ফেসবুক পেজ থেকে অর্ডার করা যাবে। অনলাইনে মূল্য পরিশোধের পাশাপাশি থাকছে বিনামূল্যে পণ্য ডেলিভারি পাওয়ার সুবিধা। ওয়েবসাইট : www.kaykraft.com

রঙ বাংলাদেশ : দেশীয় পোশাকের অন্যতম ফ্যাশন হাউস 'রঙ বাংলাদেশ' নিয়ে এসেছে অনলাইন স্টোর। আছে হোম ডেলিভারির সুবিধা। বিকাশ ও ডেভিড বা ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে মূল্য পরিশোধের সুযোগ থাকছে। ঢাকার মধ্যে থাকছে ক্যাশ অন ডেরিভারি সুবিধা। ঢাকার মধ্যে ২ থেকে ৩ দিন আর বাইরে ৫ থেকে ৭ দিনের মধ্যে পণ্য পৌঁছে দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। ওয়েব ঠিকানা :www.rang-bd.com

দেশাল : করোনাকালে নিজেদের তৈরি পোশাক গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দিতে অনলাইন স্টোর চালু করেছে 'দেশাল'। ওয়েব সাইট থেকে খুব সহজে পণ্য অর্ডার করা যাবে। যে কোনো ব্যাংকের কার্ড এবং বিকাশ এমনকি হাতে মূল্য পরিশোধের সুযোগ থাকছে। ওয়েব ঠিকানা : www.deshal.net

লা রিভ : পাশ্চাত্যের ধাঁচে দেশীয় তৈরি পোশাকের প্রতিষ্ঠান 'লা রিভ'। এবার ঈদে নিয়ে এসেছে অভিজাত পোশাকের সম্ভার 'নার্গিসাস'। এ ছাড়াও সবার জন্য থাকছে ঈদের নতুন পোশাক। এই সবকিছু পাওয়া যাবে তাদের অনলাইন শপে। দুই হাজার টাকার ওপরে পণ্য অর্ডার করলে বিনামূল্যে ডেলিভারি সুবিধা থাকছে। আর মূল্য পরিশোধ করা যাবে ক্যাশ অন ডেলিভারি, বিকাশ এবং কার্ডে। ওয়েব ঠিকানা :www.lerevecraze.com

সারা : তরুণ ফ্যাশনকে প্রাধান্য দিয়ে পোশাকের সম্ভার সাজিয়েছে 'সারা' লাইফস্টাইল। করোনাকালে ফ্যাশনপ্রেমীরা তাদের পছন্দের পোশাকটি ঘরে বসে কিনতে পারেন প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব ই-কমার্স সাইট থেকে। শোরুমের পাশাপাশি এসব পোশাক মিলবে তাদের অনলাইন শপে। ঢাকার ক্রেতাদের জন্য রয়েছে বিনামূল্যে ডেলিভারির সুবিধা। পণ্য পাওয়ার পর ১৫ দিনের মধ্যে পরিবর্তন করে নেওয়ার সুযোগ দিচ্ছে তারা। মূল্য পরিশোধের জন্য ক্যাশ অন ডেলিভারির পাশাপাশি এসএসএল কমার্জে যে কোনো মাধ্যমে পেমেন্ট করতে পারবেন। ওয়েব ঠিকানা :www.saralifestyle.com.bd

সেইলর :এরই মধ্যে ঈদ কালেকশন ২০২১ নিয়ে হাজির হয়েছে দেশীয় লাইফস্টাইল প্রতিষ্ঠান 'সেইলর'। নতুন পোশাকে নিজেকে সাজিয়ে তুলতে সারাদেশেরই বিনামূল্যে পণ্য ডেলিভারি সুবিধা দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। এ ক্ষেত্রে ক্রেতাকে কমপক্ষে দুই হাজার টাকার বেশি পণ্য অর্ডার করতে হবে। অনলাইন শপ ছাড়াও ফেসুবক পেজের মাধ্যমে যে কোনো পণ্য অর্ডার করা যাবে। এবারের ঈদ কালেকশনে তাদের রয়েছে- ছেলেদের পাঞ্জাবি, শার্ট, প্যান্ট ও জুতা। মেয়েদের জন্য থাকছে- সালোয়ার-কামিজ, কুর্তি, টপস, ফুটওয়্যার ও এক্সেসরিজ। অনলাইন গেটওয়ের মাধ্যমে ক্রয়কৃত পণ্যের মূল্য পরিশোধ করা যাবে। ওয়েব ঠিাকনা :www.sailor.clothing

কিউরিয়াস : দেশীয় মোটিফে তৈরি পোশাকের নতুন স্টোর কিউরিয়াস। লাইফস্টাইলের সব পণ্য নিয়ে সাজানো রয়েছে তাদের শোরুম বা ফ্ল্যাগশিপ স্টোরগুলো। কিন্তু করোনাকালে কীভাবেই বা যাবে আর কিনবেনই বা কেমন করে। পথচলার সূচনালগ্ন থেকেই শোরুমের পাশাপাশি অনলাইন স্টোর সাজিয়ে তুলেছে প্রতিষ্ঠানটি। শোরুমের সব পণ্য সবার আগে মেলে অনলাইনে। করোনাকালে তাই অনলাইনেই সেরে নিতে পারেন ঈদের কেনাকাটা। যে কোনো গেটওয়ের মাধ্যমে মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন। এ ছাড়া ঢাকার ভেতরে পাচ্ছেন বিনামূল্যে ডেলিভারির সুবিধা। ওয়েব ঠিকানা:www.qriusbd.com

অন্যান্য : এ ছাড়া দেশীয় ফ্যাশন হাউস রেড অরিজিন, ভারগো, ইস্টাসি, রিচম্যান, নগর পল্লী, ইয়োলো, ফ্রিল্যান্ড, দর্জিবাড়ি, অঞ্জন'স, ইজি, সাদাকালো, টেক্সমার্ট, স্মার্টটেক্স, ট্রেঞ্জ, ক্লাব হাউস, জতি শাড়িজ, জেন্টালপার্ক, গ্রামীণ ইউনিক্লো, নাবিলা, মিথ, মেনজ ক্লাব এবং মেনজ ওয়ার্ল্ডসহ জনপ্রিয় ফ্যাশন হাউসগুলোর রয়েছে নিজস্ব ওয়েবসাইট। যেখানে পছন্দমতো ঈদের পোশাক অর্ডার করা যাবে। তাই ঘরে বসেই করতে পারবেন এবারের ঈদের কেনাকাটা।



অনলাইন কেনাকাটায় বাড়তি সতর্কতা

আমাদের দেশেও দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে অনলাইন কেনাকাটা। তবে একটু অসতর্ক হলেই খোয়া যেতে পারে হিসাবের টাকা। লেনদেনের সময় আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে এটি যেন পরিচিত পেমেন্ট গেটওয়ে হয়। মোবাইল ওয়ালেটের মাধ্যমে পেমেন্টের ক্ষেত্রে কাউকে পিন বা পাচ কোড বলবেন না। বাড়তি টাকা কাটার মেসেজ এলে ব্যাংকে দ্রুত জানান। কার্ডের পাস কোড দেওয়ার আগে মূল্য ঠিক আছে কিনা যাচাই করে নিন। অস্বাভাবিক অফারের ব্যাপারে সতর্কতা অবলম্বন করুন। ফেসবুক পেজ বা স্টোর থেকে কিনলে ক্যাশ অন ডেলিভারির মাধ্যমে পণ্য নেওয়া উত্তম।

মন্তব্য করুন