টেকলাইন

টেকলাইন

উইন্ডোজ ১০ আপডেট বৃত্তান্ত

প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

মোখলেছুর রহমান

সফটওয়্যার জায়ান্ট মাইক্রোসফটের জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেমের সর্বশেষ সংস্করণ উইন্ডোজ ১০। ল্যাপটপ ও ডেস্কটপ কম্পিউটারে সর্বাধিক ব্যবহূত অপারেটিং সিস্টেম এটি। উইন্ডোজ আগেই ঘোষণা দেয়, উইন্ডোজ ১০-এর পর আর কোনো সংস্করণ ছাড়বে না তারা। তবে নিয়মিত হালনাগাদ করা হবে অপারেটিং সিস্টেমটির। এ ঘোষণার পর বেশ কিছু আপডেট ছেড়েছে মাইক্রোসফট। আর প্রতিটি আপডেটেই নতুন নতুন পরিবর্তন এনেছে কোম্পানিটি। এসব আপডেটে মাইক্রোসফট মূলত তাদের এই অপারেটিং সিস্টেমটির বিভিন্ন ত্রুটি সংশোধন, নতুন সুরক্ষা নীতিমালা প্রকাশ এবং মাঝেমধ্যে নতুন ফিচার যুক্ত করে। উইন্ডোজ ১০-এর সর্বশেষ হালনাগাদ উন্মোচিত হয় গত বছরের অক্টোবরে। এবার জেনে নেওয়া যাক উইন্ডোজ ১০-এর হালনাগাদ বৃত্তান্ত।

সংস্করণ :১৮০৯

মুক্তির তারিখ :২ অক্টোবর (তবে সমালোচনার মুখে ৫ অক্টোবর এর ব্যবহার করা হয় এবং ১৩ নভেম্বর পুনরায় ব্যবহারের জন্য অবমুক্ত করে দেওয়া হয়।)

এই আপডেটে উইন্ডোজ ১০-এ একটি নতুন পাওয়ার্ড-আপ উইন্ডো ক্লিপবোর্ড যুক্ত হয়, যাতে একই সঙ্গে একাধিক ক্লিপ ধরে রাখা যায় এবং ক্লিপগুলোকে স্থায়ীভাবে স্টোর করে রাখা যায়। এ ছাড়া উইন্ডোজ ১০-এ স্নিপ ও স্কেচ নামক একটি নতুন স্ট্ক্রিনশট এবং এনটাইটেশন টুল যুক্ত হয়। যার মাধ্যমে সমগ্র স্ট্ক্রিনকে স্ট্ক্র্যাপ করে আয়তক্ষেত্রাকার অংশ বা এটির একটি ফ্রিহ্যান্ড ড্রোন অংশ স্ট্ক্রিনশট হিসেবে ক্যাপচার করা যায়। একটি স্ট্ক্রিনশট নেওয়ার পর এর নতুন নামে একটি ফাইলে সংরক্ষণ করা যায় এবং ক্লিপবোর্ডে অনুলিপিও করা যায়। তবে এই আপডেটটি আসার সঙ্গে সঙ্গে মাইক্রোসফটকে অনেক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়। কারণ অনেকে অভিযোগ করেছিল, আপডেট দেওয়ার ফলে তাদের কম্পিউটার থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অনেক ফাইল মুছে যাচ্ছে। যার ফলে পরে আরও ছোট ছোট আপডেট আনে মাইক্রোসফট। এর মধ্যে সবচেয়ে বড় পরিবর্তনটি হয় ২০১৮ সালের ১৩ নভেম্বর। ওই দিন মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ১০-এর এমন আপডেট আনে, যেখানে মাইক্রোসফট এজ, উইন্ডোজ স্ট্ক্রিপ্টিং, ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার, উইন্ডোজ অ্যাপ প্ল্যাটফর্ম এবং ফ্রেমওয়ার্কস, উইন্ডোজ গ্রাফিক্স, উইন্ডোজ মিডিয়া, উইন্ডোজ কার্নেল, উইন্ডোজ সার্ভার এবং উইন্ডোজ ওয়্যারলেস নেটওয়ার্কিংয়ের অনেক সংশোধনী যুক্ত হয়। এতে মাইক্রোসফট নিরাপত্তা আপডেটসহ বিভিন্ন নিরাপত্তা সমস্যার সমাধান করে।

সংস্করণ :১৮০৩

মুক্তির তারিখ :৩০ এপ্রিল, ২০১৮

অক্টোবরের আপডেটের আগে উইন্ডোজ ১০-এর সবচেয়ে বড় আপডেটের ঘটনা ঘটে ২০১৮ সালের এপ্রিলে। এই আপডেটে মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ১০-এ বড় পরিবর্তন নিয়ে আসে, যার অনেকটা এখনও চলমান। ওই আপডেটে উইন্ডোজ ১০-এ টাইমলাইন ফিচারটি যুক্ত হয়, যা ব্যবহারকারীদের তাদের পিসিতে শুরু করা ফাইলগুলো পর্যালোচনা এবং পুনরায় চালু করার সুযোগ দেয়। এ ছাড়া আপনি আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসগুলোতে যে যে কাজ করেছেন, তাও এটি ট্র্যাক করে, যদি আপনি তাদের ওপর মাইক্রোসফটের ডিজিটাল সহকারী কর্টানা ইনস্টল করেন এবং লগ ইন থাকেন। এটি ৩০ দিন পর্যন্ত কাজের তালিকা দেখায়। প্রতিটি ফাইলের নাম ও নথি শিরোনাম অথবা এর ইউআরএল এবং ওয়েবসাইটের নাম এবং এটির ওপরে তৈরি করা অ্যাপ্লিকেশন বা অ্যাপ্লিকেশনের নামের সঙ্গে বড় টালি হিসেবে দেখায়। এ ছাড়া এপ্রিলের আপডেটে উইন্ডোজ ১০-এ 'মাই পিপল' নামে একটি ফিচার যুক্ত হয়, যার মাধ্যমে এখন উইন্ডোজ টাস্কবারে ১০টি কন্টাক্ট পিন করে রাখা যায়। আগে শুধু তিনটি কন্টাক্ট পিন করে রাখা যেত।