এক বছরের বেশি সময় পর অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যে বিনা বাধায় ভ্রমণ চালু হয়েছে। এ দুই দেশে ভ্রমণের জন্য নাগরিকদের আর কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে না।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় গত বছরের মার্চে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সীমান্ত বন্ধ করে দেয়। তারপর থেকে নাগরিকদের দেশে ফিরতে কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক করা হয়। খবর বিবিসির

দীর্ঘপ্রতীক্ষিত বিনা বাধায় ভ্রমণ চালুর পর সোমবার অস্ট্রেলিয়া থেকে প্রথম ফ্লাইট নিউজিল্যান্ডের অকল্যান্ড বিমানবন্দরে পৌঁছায়। এরপর সেখানে এক আনন্দঘন পরিবেশ সৃষ্টি হয়। 

এদিন দুই দেশের হাজারের বেশি নাগরিক ভ্রমণের জন্য ফ্লাইটের অগ্রিম টিকিট কেটেছেন। 

নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ায় এখন করোনার সংক্রমণ খুবই কম। কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার মাধ্যমে দুই দেশই সফলভাব করোনা মহামারী নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছে।

অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন বিমানবন্দরে সোমবার উচ্ছ্বসিত যাত্রীদের নিউজিল্যান্ডগামী ফ্লাইটে উঠতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করতে দেখা যায়। সেখানে এক যাত্রী বলেন, আমি আজ কতটা খুশি সেটা বলে বোঝাতে পারব না।

দুই দেশের মধ্যে ‘ট্রাভল বাবল’র আওতায় ভ্রমণের আগে অন্তত ১৪ দিন ভ্রমণকারীকে অস্ট্রেলিয়া বা নিউজিল্যান্ডে অবস্থান করতে হবে।


মন্তব্য করুন