নভেম্বর থেকে আন্তর্জাতিক সীমান্ত খুলে দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া। এর ফলে ১৮ মাস পর দেশটিতে টিকা নেওয়া ভ্রমণকারীদের যাওয়ার পথ তৈরি হচ্ছে। 

শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলেছেন, যেসব রাজ্যে টিকা পাওয়ার উপযুক্তদের ৮০ শতাংশের বেশি টিকা নিয়েছেন, সেখানে সবাই স্বাধীনভাবে চলাচল করতে পারবেন। খবর বিবিসির।

দেশটিতে এখন কেবল অস্ট্রেলীয় এবং বিশেষ ক্ষেত্রে ছাড় পাওয়া ব্যক্তিরাই প্রবেশ করতে পারছেন। দেশটির নাগরিকদের বিদেশে যাওয়ায়ও নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।  

অস্ট্রেলিয়ায় এখন নামামাত্রই ১৪ দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হয়, যার খরচ পড়ে ৩ হাজার অস্ট্রেলীয় ডলার।

নভেম্বর থেকে এ বিধিনিষেধ শিথিল হচ্ছে। নতুন নিয়মে টিকা নেওয়া ভ্রমণকারীদের অস্ট্রেলিয়া ঢোকার পর থাকতে হবে ৭ দিনের ‘হোম কোয়ারেন্টিনে’।

সীমান্ত খোলার ঘোষণা এলেও বড় এয়ারলাইন্সগুলো সতর্ক করে বলেছে, নভেম্বরের মধ্যে সব সেবা চালু করা তাদের পক্ষে সম্ভব নাও হতে পারে।