যাবজ্জীবনের দণ্ড মাথায় নিয়ে কানাডায় পলায়ন

প্রকাশ: ০৪ আগস্ট ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

সাইয়েদ মালেকপোর- বিবিসি

১১ বছর জেল খাটার পর সাময়িক মুক্তি পেয়ে দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত ইরানে জন্ম নেওয়া কানাডার এক নগরিক।

সম্প্রতি সাইয়েদ মালেকপোর নামের ওই ব্যক্তির বোন একটি ভিডিওতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বলে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

পর্নোগ্রাফির ওয়েবসাইট সংক্রান্ত এক মামলায় যাবজ্জীবন দণ্ড দেওয়া হয় সাইয়েদকে। ইরান কর্তৃপক্ষ জানায়, ওয়েবসাইটে ছবি আপলোডের জন্য তার তৈরি প্রোগ্রামটি পার্সিয়ান ভাষায় পর্নোগ্রাফি ওয়েবসাইট হিসেবে ব্যবহৃত হতো।

সম্প্রতি অল্প সময়ের জন্য কারাগার থেকে মুক্তি পান সাইয়েদ। এরপরই তিনি কানাডায় পালিয়ে যান। শুক্রবার তার বোন সাইয়েদের কানাডায় ফিরে যাওয়া নিয়ে একটি ভিডিও পোস্ট করেন।

ইরানের বিচার বিভাগের সরকারি বার্তা সংস্থা মিজান অনলাইনের মুখপাত্র গুলাম হোসেন ইসমাইলি এক বিবৃতিতে বলেন, সাইয়েদ তিনদিনের জন্য মুক্তি পেয়েছিলেন। তাকে দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল। তিনি অবৈধ উপায়ে দেশ ছেড়েছেন।

সাইয়েদের মামলাটির সঙ্গে যুক্ত থাকা আন্তর্জাতিক আইনের অধ্যাপক পায়াম আখাভান কানাডার গণমাধ্যমকে বলেন, জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থাগুলোর চাপে মালেকপোরকে সাময়িকভাবে মুক্তি দেওয়া হয়েছিল। কারা কর্তৃপক্ষের কাছে এসে তাকে আবার হাজিরা দিতে বলা হয়েছিল।

এর পরিবর্তে তিনি তৃতীয় আরেকটি দেশের মাধ্যমে কানাডায় চলে আসেন বলে পায়াম জানান।

সাইয়েদের কানাডায় ফেরা নিযে তার বোন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলেন, অবশেষে দুঃস্বপ্নের ইতি। সে বাড়ি ফিরে এসেছে এবং বোনের সঙ্গে একত্রিত হয়েছে। এই নেতৃত্বের জন্য ধন্যবাদ কানাডাকে।

বাবাকে দেখতে গিয়ে ২০০৮ সালে ইরানে গ্রেফতার হয়েছিলেন সাইয়েদ। পরে তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়।