ঢাকা শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

ফুলবাড়ী দিবসে আনু মুহাম্মদ

মানুষের সর্বনাশের প্রকল্প কখনও উন্নয়নের হতে পারে না

মানুষের সর্বনাশের প্রকল্প কখনও উন্নয়নের হতে পারে না

ফুলবাড়ী দিবসে বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ- সমকাল

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট ২০২২ | ০৭:৫৬ | আপডেট: ২৬ আগস্ট ২০২২ | ০৭:৫৬

যে কোনো মূল্যে উন্মুক্ত পদ্ধতির কয়লা খনি প্রতিহত করা হবে বলে আবারও প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ। তিনি বলেছেন, ‘যে প্রকল্পে মানুষের সর্বনাশ হয়; জীবন ছিন্নভিন্ন হয়ে যায়, সেটিকে কখনও উন্নয়ন প্রকল্প বলা যায় না।’

শুক্রবার ফুলবাড়ী দিবস উপলক্ষে দিনাজপুরে এক সমাবেশে এসব কথা বলেন আনু মুহাম্মদ। তিনি এ সময় এশিয়া এনার্জিকে বহিস্কার, তাদের সুবিধাভোগীদের গ্রেপ্তার ও ৬ দফা ফুলবাড়ী সমঝোতা চুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়ন দাবি করেন। একই সঙ্গে আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে এসব চুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়ন না হলে অক্টোবর থেকে কঠিন কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন এ অর্থনীতিবিদ।

আনু মুহাম্মদের অভিযোগ, সে সময়ের বিরোধীদলীয় নেত্রী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন- '৬ দফা চুক্তি বাস্তবায়ন না করলে পরিস্থিতি ভয়াবহ হবে।' অথচ তাঁরা ১৪ বছর ক্ষমতায় থেকেও চুক্তি বাস্তবায়ন করেননি।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘এলাকাবাসীর প্রতিরোধের কারণে দীর্ঘ ১৬ বছর এশিয়া এনার্জি ফুলবাড়ীর কয়লা সম্পদ লুটপাট করতে পারছে না। এখন তারা খনিবিরোধী আন্দোলন নস্যাৎ করতে দুটি মিথ্যা মামলা দিয়েছে।’

তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির ফুলবাড়ী শাখার আহ্বায়ক সৈয়দ সাইফুল ইসলাম জুয়েলের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- জাতীয় গণফ্রন্টের কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক টিপু বিশ্বাস, বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের কেন্দ্রীয় সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মোশাররফ হোসেন নান্নু, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা হবিবর রহমান, গণসংহতি আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য নাজার আহম্মেদ, বাসদ-মাহবুবের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক সন্তোষ গুপ্ত, ফুলবাড়ী উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম বাবলু, ফুলবাড়ী কুলি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি হামিদুল হক, রিকশা-ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম ফকির প্রমুখ।

এর আগে দিবসটি উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি, ফুলবাড়ীর পৌর মেয়র ও আমরা ফুলবাড়ীবাসীর ব্যানারে বিভিন্ন সংগঠন নিহতদের স্মরণে শোক র‌্যালি ও শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।

এ ছাড়া ফুলবাড়ী পৌরসভার মেয়র মাহমুদ আলম লিটন, সাবেক মেয়র মুরতুজা সরকারের নেতৃত্বে শোক র‌্যালি হয়। পরে শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধা নিবেদন ও শপথবাক্য পাঠ করান মুরতুজা।

২০০৬ সালের ২৬ আগস্ট উন্মুক্ত পদ্ধতিতে কয়লা খনি প্রকল্প বাতিল, জাতীয় সম্পদ রক্ষাসহ ৬ দফা দাবিতে দিনাজপুরের ফুলবাড়ীর সাধারণ মানুষ বিক্ষোভ করেন। বিক্ষোভে পুলিশ ও বিডিআর (বর্তমানে বিজিবি) গুলি চালালে তিনজন নিহত ও দুই শতাধিক নারী-পুরুষ আহত হন।

আরও পড়ুন

×