ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

১১ মাস বেতন বন্ধ গ্রাম পুলিশ সদস্যদের

১১ মাস বেতন বন্ধ গ্রাম পুলিশ সদস্যদের

ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ২৫ অক্টোবর ২০২২ | ১৩:১৬ | আপডেট: ২৫ অক্টোবর ২০২২ | ১৩:১৬

প্রায় ১১ মাস ধরে বেতন-ভাতা পাচ্ছেন না সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলায় বিভিন্ন এলাকার গ্রাম পুলিশ সদস্যরা। নিয়মিত কাজ করে বেতন-ভাতা না পেয়ে তাঁরা মানবেতর জীবন যাপন করছেন। এ ছাড়া চার বছর ছয় মাস ধরে তাঁদের হাজিরা ভাতাও বন্ধ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে মোট ৮১ জন গ্রাম পুলিশ সদস্য। তাঁদের মধ্যে সাতজন দফাদার এবং ৭৪ জন মহল্লাদার। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী দফাদার প্রতি মাসে ৭ হাজার ও মহল্লাদার ৬ হাজার ৫০০ টাকা বেতন পেয়ে থাকেন। মোট বেতনের অর্ধেক ইউনিয়ন পরিষদ থেকে দেওয়া হয়। ১১ মাস ধরে ইউপি অংশের বেতন-ভাতা বকেয়া পড়ে আছে। ইউপি চেয়ারম্যানদের ট্যাপ আদায় থেকে যে টাকা আসে তা দিয়ে ইউপি অংশের বেতন-ভাতা দেওয়া হয় বলে জানা গেছে।

গ্রাম পুলিশ দোয়ারাবাজার উপজেলা কমিটির সভাপতি মফিজুর রহমানসহ আরও কয়েকজন জানান, গ্রাম পুলিশের সদস্যরা উপজেলা পরিষদ, ইউপিসহ গ্রাম-মহল্লায় দিনরাত কষ্ট করে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন কিন্তু বেতন-ভাতা পাচ্ছেন না। বেতন-ভাতা না পেয়ে তাঁরা পরিবার নিয়ে কষ্টে রয়েছেন।

ইউএনও ফারজানা প্রিয়াংকা বলেন, করোনা ও বন্যার কারণে পর্যাপ্ত ট্যাপ আদায় করা সম্ভব হয়নি বিধায় তহবিলে টাকার স্বল্পতা রয়েছে। তাই সময়মতো তাঁদের বেতন-ভাতা দেওয়া যায়নি। বিষয়টি দ্রুতই সমাধান করা হবে।

আরও পড়ুন

×