ঢাকা শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

বান্দরবানে খুনের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন

বান্দরবানে খুনের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন

ছবি-সমকাল

বান্দরবান প্রতিনিধি

প্রকাশ: ০৩ নভেম্বর ২০২২ | ০৪:২৮ | আপডেট: ০৩ নভেম্বর ২০২২ | ০৪:২৮

বান্দরবানে মাংরক ম্রো হত্যা মামলায় মংছা চিং মারমা (২৮) নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ১০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশও দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার বান্দরবান জেলা দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. ফজলে এলাহী ভুইয়া এ রায় দেন। মংছা চিং মারমা লামার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ত্রিশডেবা এলাকার অংক্য থোয়াই মারমার ছেলে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) মো. ইকবাল করিম  রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়,  ২০১৭ সালের ২৬ জুলাই লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ত্রিশডেবা এলাকায় বর্গাচাষি ডোমং মারমা ও কহেলাঅং মারমার নিকট হতে বর্গাচাষের টাকার জন্য যান মাংরক ম্রো। এরপর ২৮ জুলাই পর্যন্ত বাসায় না ফেরায় মাংরক ম্রোর পরিবার বর্গাচাষি ডোমং মারমার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। ডোমং মারমা জানান মাংরক ম্রো বর্গা চাষের ১৮ হাজার ৫০০ টাকা নিয়ে ২০১৭ সালের ২৭ জুলাই বাড়র উদ্দেশ্যে রওনা দেন। 

পরে এই ঘটনায় স্থানীয় লোকজন সন্দেহজনক মংছা চিং মারমাকে (২৮) আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। জিজ্ঞাসাবাদে মংছা চিং মারমার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী লামা ফাঁসিয়া খালী ইউনিয়নের মুরুংঝিরির আগা এলাকার ঝিড়ির পাশ হতে মাংরক ম্রোর মাথা বিহীন অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ২০১৭ সালের ১ আগস্ট নিহত মাংরক ম্রোর ছেলে মেনতাম ম্রো বাদী হয়ে লামা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করার পরিপ্রেক্ষিতে সাক্ষীদের সাক্ষ্য ও মামলায় দোষী প্রমাণিত হওয়ায় বান্দরবান জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. ফজলে এলাহী ভুইয়া এই রায় ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন

×