ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতাল

৫৮ পদে ২০ চিকিৎসক, ব্যাহত স্বাস্থ্যসেবা

৫৮ পদে ২০ চিকিৎসক, ব্যাহত স্বাস্থ্যসেবা

মাগুরা প্রতিনিধি

প্রকাশ: ২৩ ডিসেম্বর ২০২২ | ১২:০০ | আপডেট: ২৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ০১:১৭

মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ৫৮ চিকিৎসকের পদ থাকলেও রয়েছেন মাত্র ২০ জন। শুধু চিকিৎসকই নয়; কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংখ্যাও আশঙ্কাজনক হারে কম। এতে স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন এলাকাবাসী।

ভেন্টিলেটর ও আইসিইউ ইউনিট থাকলেও শুরু থেকেই তা তালাবদ্ধ। পুরাতন ভবনের ১০০ বেড ও মেঝেতে চিকিৎসা নিচ্ছেন রোগীরা। তত্ত্বাবধায়ক বলছেন, প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগ হলে সব সমস্যার সমাধান হবে।

মাগুরার পাশাপাশি আশপাশের জেলা থেকেও হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা নিতে আসেন রোগীরা। প্রতিদিন আউটডোরে সহস্রাধিক রোগী আসেন। গড়ে সাড়ে ৩০০ রোগী নিয়মিত ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

২০১৭ সালে মাগুরার ১০০ শয্যা সরকারি এ হাসপাতালকে ২৫০ শয্যায় উন্নীত করে সরকার। কিন্তু একজন তত্ত্বাবধায়ক ছাড়া আজও নিয়োগ হয়নি চিকিৎসক, কর্মকর্তা-কর্মচারী। বরং পুরাতন ১০০ শয্যার জন্য চিকিৎসকসহ বিভিন্ন পদে জনবল সংকটও রয়েছে।

হাসপাতালে ভেন্টিলেটর সাপোর্ট ও আইসিইউ ওয়ার্ড থাকলেও শুরু থেকেই তালাবদ্ধ থাকায় হাসপাতালে ভর্তি আশঙ্কাজনক রোগীরা এই সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। তবে সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা ও একাধিক হাইফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা রয়েছে, যা রোগীর উপকারে আসছে বলে জানান ডা. বিকাশ শিকদার।

জেলা সদরের বাইরে তিনটি ৫০ শয্যার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসাসেবারও করুণ দশা। প্রত্যন্ত অঞ্চলের হাসপাতালগুলোতে নতুন চিকিৎসক যোগ দিয়েই অন্যত্র বদলি হয়ে যান।

সিভিল সার্জন শহীদুল্লাহ দেওয়ান বলেন, প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগ হলেই আইসিইউ, ভেন্টিলেটরসহ গুরুপূর্ণ যন্ত্রপাতি চালু হবে। সেবার মানও বাড়বে।

আরও পড়ুন

×