ঢাকা শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

সান্তাহার স্টেশনে আটকে পড়া বৃদ্ধা বাড়ি ফিরতে চান

সান্তাহার স্টেশনে আটকে পড়া বৃদ্ধা বাড়ি ফিরতে চান

সান্তাহার পৌর মেয়র তোফাজ্জল হোসেন ভুট্টুর হেফাজতে রয়েছেন বৃদ্ধা ফাতেমা বেওয়া - সমকাল

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ০১ এপ্রিল ২০২০ | ০৫:৫৯ | আপডেট: ০১ এপ্রিল ২০২০ | ০৬:১৭

ঢাকা থেকে যশোর যাওয়ার পথে ভুল ট্রেনে চেপে আদমদীঘির সান্তাহার স্টেশনে নেমে সাতদিন যাবত আটকা পড়া ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধা ফাতেমা বেওয়া। তিনি তার বাড়িতে স্বজনদের কাছে ফিরতে চান। 

কিন্ত স্বজনদের কোনো ফোন নম্বর তার জানা নেই। ফাতেমা বেওয়া সান্তাহার পৌরসভার মেয়র তোফাজ্জল হোসেন ভুট্টুর হেফাজতে রয়েছেন। 

বৃদ্ধা ফাতেমা বেওয়া জানান, তার স্বামীর নাম মৃত শেখ খলিল মিয়া, বাড়ি যশোহর জেলা সদরের শংঙ্করপুর গোলপাতা মসজিদের পার্শ্বে। তার ৩ মেয়ে ও ১ ছেলে রয়েছে। ছেলে দেলোয়ার হোসেন ভাংড়ি ব্যবসা করেন। তিনি বাড়ির ঠিকানা বলতে পারলেও স্বজনদের মোবাইল ফোন নম্বর বলতে পারেন না। চিকিৎসার জন্য ঢাকায় এক আত্মীয়ের বাসায় গিয়েছিলেন ফাতেমা। গত ২৫ মার্চ সেই আত্মীয় তাকে ঢাকার কমলাপুর স্টেশনে রেখে যান। ফাতেমা যশোরের ট্রেনে না উঠে ভুলক্রমে উত্তরাঞ্চলের সৈয়দপুরগামী ট্রেনে উঠে সান্তাহার রেলওয়ে স্টেশনে নামেন।

গত ২৬ মার্চ দেশে করোনাভাইরাসের কারণে গণপরিবহণ বন্ধ হয়ে যায়। এতে ফাতেমা বেওয়া সান্তাহার রেলওয়ে জংশন স্টেশনে আটকা পড়েন। তিনি বাড়ি ফেরার জন্য অস্থির হয়ে উঠেছেন।  

সান্তাহার পৌর মেয়র তোফাজ্জল হোসেন ভুট্টু জানান, গত মঙ্গলবার বিকেলে সান্ত্মাহার রেলওয়ে টিকিট কাউন্টারের পার্শ্বে বৃদ্ধা ফাতেমাকে কান্নাকাটি করতে দেখে তাকে উদ্ধার করে পৌরসভায় নিয়ে আসেন। তার সঙ্গে যোগাযোগ করে (মোবাইল ০১৭১১-৮৩৪১৩৩) বৃদ্ধা ফামেতাকে নিয়ে যাওয়ার জন্য তিনি তার স্বজনদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন

×