কানাইঘাটে বন্যার পানিতে ডুবেছে ঘর-বাড়ি, সড়ক

প্রকাশ: ১৪ জুন ২০১৮     আপডেট: ১৪ জুন ২০১৮      

কানাইঘাট (সিলেট) প্রতিনিধি

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢল ও টানা বৃষ্টিতে কানাইঘাটে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। বানের পানিতে ঘর-বাড়ি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সড়কগুলো ডুবে গেছে। ভেসে গেছে গবাদি পশু ও আসবাবপত্র। নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিচ্ছেন ঘর-বাড়ি হারা মানুষ। আতঙ্কে রয়েছেন উপজেলার লক্ষাধিক মানুষ। বৃহস্পতিবার কানাইঘাট উপজেলার পৌর শহরসহ ৯টি ইউনিয়নে বন্যা এমন পরিস্থিতি দেখা গেছে।

স্থানীয়রা জানান, সুরমা ও লোভা নদীর দু’তীরের উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়ে কানাইঘাট পৌর শহরে ঢুকে পড়েছে। বাজারের প্রায় সবক’টি দোকান পানিতে ডুবে যাওয়ায় মালামাল নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। পৌর কাউন্সিলর বিলাল আহমদ ও শরিফুল হক জানান, বন্যার পানিতে কানাইঘাট বাজারসহ পৌরসভার অধিকাংশ জায়গা তলিয়ে গেছে।

লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউনিয়নের অধ্যক্ষ মুজম্মিল আলী জানান, তার গ্রাম উত্তর লক্ষ্মীপ্রসাদের সব ঘর-বাড়ি পানির নীচে রয়েছে। তিনি স্বপরিবারে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন। একই অবস্থা লক্মীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নের সতিপুর, বাজেখেল, সাউদগ্রাম, কান্দলা, উজান ফৌদ, মেছা, ভাটিপাড়াপৈতসহ বেশ কয়েকটি গ্রামে।

মেছাগ্রামের পুলিশ কর্মকর্তা সাহাব উদ্দিন জানান, তার ঘর-বাড়িসহ গ্রামের সব ঘর পানিতে তলিয়ে গেছে। অনেকের গবাদি পশু বানের পানিতে ভেসে গেছে। সাতবাঁক ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ পলাশ জানান, তার ইউনিয়নের প্রায় সব গ্রাম বানের পানিতে তলিয়ে গেছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানিয়া সুলতানা জানান, সুরমা ও লোভা নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়ে কানাইঘাটের অধিকাংশ জায়গা ও সড়ক ডুবে গেছে। ১ ও ২নং ইউনিয়নের পরিস্থিতি খুবই খারাপ। উপজেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।