প্রথমে ধাওয়া, পরে ফুল দিল পুলিশ

প্রকাশ: ০২ আগস্ট ২০১৮      

চাঁদপুর প্রতিনিধি

ঢাকায় বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনা এবং চাঁদপুরে অবৈধ যানবাহন চলাচলের প্রতিবাদে আন্দোলনে নেমেছে শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার পর থেকে বৃষ্টি উপেক্ষা করে শহরের কালিবাড়ি শপথ চত্বর এলাকা থেকে শুরু হয়ে চিত্রলেখা মোড়, সরকারি কলেজ গেইট, বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত রাস্তায় আন্দোলন করতে দেখা গেছে ছাত্রছাত্রীদের। 

এ সময় কয়েকটি বাস ও ট্রাক ভাঙচুর করে শিক্ষার্থীরা। তবে ছোট যানবাহনগুলোর কোন ক্ষতি না করে চালকদের শৃঙ্খলা মেনে চলতে অনুরোধ জানায় তারা। সেই সঙ্গে শিক্ষার্থীরা গাড়ি চালকদের লাইসেন্সও দেখতে চায়। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার পরও সকাল ১০টার দিকে শহরের হাসান আলী স্কুল, গনি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়সহ শহরের প্রায় সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা প্রথমে শহরের প্রাণকেন্দ্র শপথ চত্বরে অবস্থান নেয়। এ সময় তারা চালকদের ড্রাইভিং লাইসেন্স পরীক্ষা করে। সেখানে তারা একটি ট্রাক ভাঙচুর করে। পরে তারা মিছিল নিয়ে চাঁদপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় জড়ো হয়ে চাঁদপুর থেকে কুমিল্লাগামী বোগদাদ ট্রান্সপোর্টের একটি এবং চট্রগ্রামগামী সৌদীয়া ট্রান্সপোর্টের আরেকটি বাসে ভাঙচুর চালায়। এ অবস্থায় পুলিশ এসে প্রথমে ছাত্রদের ধাওয়া দেয়। এ সময় কিছু ছাত্র বাসস্ট্যান্ডের সড়কে শুয়ে পড়ে। এর প্রায় এক ঘণ্টা পর চাঁদপুরের পুলিশ সুপারসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ছাত্রদের কাছে ফুল নিয়ে আসেন এবং তাদের দাবি মেনে নেয়ার আশ্বাস দেন।

পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো আমরা সম্মানের সাথে দেখছি। তোমরা কোন গাড়ি ভাঙচুর করো না। তোমাদের দাবিগুলো মেনে নেওয়া হবে। বিকেলে জেলা প্রশাসনের সঙ্গে একটি বৈঠক করা হবে। তোমরা ঘরে ফিরে যাও।