‘সকলকেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনার অঙ্গীকার মেনে রাজনীতি করতে হবে’

প্রকাশ: ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

গাইবান্ধা প্রতিনিধি

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা মানবাধিকার কর্মী অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল বলেছেন, বাংলাদেশে যারাই রাজনীতি করবেন তাদের সকলকেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনার অঙ্গীকার মেনে রাজনীতি করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিপরীতে যারা রাজনীতি করে, তাদের এ দেশে রাজনীতি করার কোনো অধিকার নেই।

সোমবার গাইবান্ধা জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে আদিবাসী যুব মিলনমেলা ও সাংস্কৃতিক উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

সুলতানা কামাল বলেন, আমাদের দেশের রাজনীতিক শক্তিগুলো ক্ষমতায় যাওয়ার পর পিছিয়ে পড়া মানুষদের প্রতি উদাসীন থাকে। এটি খুবই দুঃখজনক।

আদিবাসী যুব মিলনমেলা ও সাংস্কৃতিক উৎসব কমিটির আহবায়ক প্রিসিলা মুর্মুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক গৌতম চন্দ্র পাল, পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া, সাদুল্যাপুর সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অধ্যাপক জহুরুল কাইয়ুম, আদিবাসী বাঙালি সংহতি পরিষদ গাইবান্ধা জেলা শাখার আহবায়ক অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম বাবু, সাহেবগঞ্জ বাগদা ফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সভাপতি ফিলিমন বাসকে, আদিবাসী নেতা গৌর চন্দ্র পাহাড়ী, আদিবাসী যুব মিলনমেলা ও সাংস্কৃতিক উৎসব কমিটির সদস্য সচিব মাইকেল মার্ডি, অবলন্বনের নির্বাহী পরিচালক প্রবীর চক্রবর্তী, সারা মার্ডি প্রমুখ। 

এর আগে সকালে আদিবাসীদের একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এ সময় তারা ১৫ দফা দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি প্রধানমন্ত্রী বরাবরে জেলা প্রশাসকের কাছে হস্তান্তর করেন। শেষে আদিবাসী শিল্পীরা মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করেন।