বাগেরহাটে নছিমন চালক হত্যায় ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশ: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাগেরহাট

বাগেরহাট সদর উপজেলার চুলকাঠি এলাকার নছিমন চালক হত্যা মামলায় বৃহস্পতিবার চারজনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। বাগেরহাটের অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালত-১-এর বিচারক মো. হাফিজুর রহমান এই রায় দেন। 

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- সদর উপজেলার ভট্টবলিয়াঘাটার আবদুল ফকিরের ছেলে সোহাগ ফকির, গোলাম মোস্তফা ওরফে মাহফুজের ছেলে ইব্রাহিম মোল্লা, দক্ষিণ খানপুরের মোহাম্মদ আলীর ছেলে মিজান ও ফকিরহাট উপজেলার লকপুরের ওমর আলী মোল্লার ছেলে জুনু ওরফে ইসমাইল মোল্লা। 

একই মামলার অপর আসামি খুলনার জোনাব আলী গাজীর ছেলে জয়নাল আবেদীনকে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। 

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০১৩ সালের ১ সেপ্টেম্বর বাগেরহাট সদর উপজেলার হাকিমপুর গ্রামের আবদুল্লাহ মোল্লার ছেলে নছিমন চালক মামুন মোল্লাকে নিয়ে আসামিরা খুলনার উদ্দেশে রওনা করে। পরে তার পরিবারের লোকজন খুঁজে না পেয়ে ৯ সেপ্টেম্বর সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে। এক বছর পর তদন্ত করতে গিয়ে সদর থানার এসআই আজগর আলী এক আসামিকে আটকের পর হত্যার ঘটনা জানতে পারেন। আসামিরা মামুনকে নিয়ে খুলনায় না নিয়ে পথিমথ্যে তাকে হত্যা করে নছিমন নিয়ে অন্যত্র বিক্রি করে। এ ঘটনায় ২০১৪ সালের ১২ জুন একটি হত্যা মামলা করা হয়। পরে মামলাটি সিআইডিতে ন্যস্ত করা হয়। 

সিআইডি পরিদর্শক নিজাম উদ্দিন হাওলাদার এ বছরের ২৮ ডিসেম্বর পাঁচজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। আদালত সাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে উপরোক্ত রায় প্রদান করেন। 

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট সৈয়দ জাহিদ হোসেন ও আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. মোসলেম উদ্দিন, মো. এনায়েত হোসেন ও মনোজ কুমার শিকদার।