স্ত্রী হত্যার দায় স্বীকার সাভার যুবলীগের সাবেক সভাপতির

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

সেলিম মণ্ডল— ফাইল ছবি

ঢাকা জেলা পরিষদ সদস্য ও সাভার থানা যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি সেলিম মণ্ডল তার দ্বিতীয় স্ত্রী আয়েশা আক্তার বকুলকে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

মানিকগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক নিভানা খায়ের জেসির কাছে বুধবার সেলিম জবানবন্দি দেন। এদিন বিকেলে মানিকগঞ্জের পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম নিজ কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং করে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

পুলিশ জানায়, চলতি বছরের শুরুর দিকে সাভারের বিরুলিয়া গ্রামের ইব্রাহিম মণ্ডলের ছেলে সেলিম বিরুলিয়া ইউনিয়নের সামাইর গ্রামের সোহরাব হোসেনের মেয়ে আয়েশাকে বিয়ে করেন। পারিবারিক কোন্দলের জেরে গত ২ আগস্ট রাতে সাভারের মজিদপুর ভাড়া বাসায় সেলিম স্ত্রী আয়েশাকে পিটিয়ে খুন করেন। ঘটনা ধামাচাপা দিতে বাসার সিসি ক্যামেরা সরিয়ে ফেলা হয়। এরপর ওই দিনই সহযোগীদের নিয়ে আয়েশার লাশ চাদর দিয়ে মুড়িয়ে সেলিম ব্যক্তিগত গাড়িতে করে মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার বায়রা ইউনিয়নের স্বরূপপুর নিয়ে আসেন। পরদিন ভোরে লাশের গায়ে পেট্রোল ঢেলে তাতে আগুন দিয়ে সেলিম ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। ৩ আগস্ট সিংগাইর উপজেলার বায়রা গ্রাম থেকে এক নারীর পোড়া লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তখন ময়নাতদন্ত শেষে অজ্ঞাতপরিচয় হিসেবে আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলামের মাধ্যমে লাশটি মানিকগঞ্জ পৌরসভা কবরস্থানে দাফন করা হয়। এ ঘটনায় সিংগাইর থানা পুলিশ অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের আসামি করে একটি হত্যা মামলাও করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিংগাইর থানার উপপুলিশ পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন জানান, ঝলসানো মরদেহের ছবি দেখে গত ১৯ আগস্ট স্বজনরা আয়েশাকে শনাক্ত করেন। আয়েশার বড় ভাই উজ্জ্বল হোসেন এ ঘটনার জন্য সেলিম মণ্ডলকে সন্দেহ করে সিংগাইর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তবে ঘটনার পর থেকে সেলিম বেশ কিছুদিন পালিয়ে ছিলেন। গত ২৮ আগস্ট উচ্চ আদালত থেকে অস্থায়ী জামিন নেন তিনি। এর পর ৪ সেপ্টেম্বর রাতে ইতালি পালানোর সময় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। পরে জিজ্ঞাসাবাদে সেলিমের কথাবার্তায় তার স্ত্রীকে হত্যায় সম্পৃক্ততার আভাস পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন

ছয় বছরে প্রাণহানি ২৪০ নিখোঁজ দুই শতাধিক

ছয় বছরে প্রাণহানি ২৪০ নিখোঁজ দুই শতাধিক

২০১২ সালের ১২ মার্চ থেকে চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ...

হাওরে পাখি নেই আগের মতো

হাওরে পাখি নেই আগের মতো

একসময় শীত এলেই পরিযায়ী পাখির কলরবে মুখর হতো নাসিরনগরের মেদীর ...

আসুন ওদের ভুলে যাই!

আসুন ওদের ভুলে যাই!

'কিছু কিছু মানুষ সত্যি খুব অসহায়। তাদের ভালোলাগা, মন্দলাগা, ব্যথা-বেদনাগুলো ...

ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলে দূরত্ব বাড়ছে

ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলে দূরত্ব বাড়ছে

একদিকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট, অন্যদিকে ২০ দলীয় ঐক্যজোট। দুই জোটের নেতৃত্বেই ...

ঝিনুক নেই মোতিও নেই

ঝিনুক নেই মোতিও নেই

চলনবিলে আর ঝিনুক মেলে না। ঝিনুকের মোতিও মেলে না। রুদ্র ...

দিনাজপুরে প্রাণিখেকো উদ্ভিদ

দিনাজপুরে প্রাণিখেকো উদ্ভিদ

প্রাণীদের খেয়ে ফেলে- এমন উদ্ভিদের কথা রূপকথার গল্পে আছে, বাস্তবেও ...

মধ্যপ্রাচ্যে পাটপণ্য রফতানিতে ধস

মধ্যপ্রাচ্যে পাটপণ্য রফতানিতে ধস

কয়েক বছর বিশ্ববাজারে রমরমা ব্যবসার পর বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপটে ও ...

চট্টগ্রামে পাইকারি বাজারে অস্থিরতা

চট্টগ্রামে পাইকারি বাজারে অস্থিরতা

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে আমদানি করা চায়না রসুনের প্রতি কেজির ...