মহম্মদপুরে দু'দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ৩০

প্রকাশ: ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৮     আপডেট: ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

মহম্মদপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি

মহম্মদপুর উপজেলায় দু'দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত এক নারী। ছবি: সমকাল

মহম্মদপুর উপজেলার দীঘা গ্রামে স্থানীয় খালের পানিতে পাট জাগ দেওয়াকে কেন্দ্র করে দু'দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে নারীসহ অনন্ত ৩০ জন আহত হয়েছে। তাদের মধ্যে ২১ জনকে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যান্যদের স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। রোববার দুপুরে এই ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি শান্ত রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্র জানায়, উপজেলার দীঘা গ্রামের নাড়িয়ার খালের পানিতে জাগ দেওয়া পাটের  মালিকানা নিয়ে স্থানীয় আহম্মদ ও সাহাবুদ্দিনের মধ্যে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে উভয়পক্ষের সমর্থকরা দেশিয় অস্ত্র নিয়ে এসে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষে নারীসহ উভয়পক্ষের কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

সংঘর্ষে আহত মিজানুর রহমান (৫০), সাবুদ্দিন (৪৯), নয়ন শেখ (২০), আরিফুল (১৮), বাচ্চু মোল্লা (৪০), লিয়াকত (৪০), তৈয়ব শেখ (৫৫), সোহেল শেখ (৩০), সালাম শেখ (৬৫), মুসা (৩৫), সবির শেখ (৩০), মনোমিয়া (৬৫), শিল্পি (২৫), ইস্তাক (৩৫), মুকুল (৪০), সফরা (৬০), আজিজার (৬০), নার্গিস (৩৫), আহম্মদ (৫০), আশরাফুল(৩৬) ও হেলালকে (১৬) মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।  

মহম্মদপুর থানার ওসি তারীকুল ইসলাম জানান, পরিস্থিতি এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।