ডোবায় নবজাতকের লাশ

শিক্ষকের ধর্ষণে মা হওয়ার অভিযোগ কিশোরীর

প্রকাশ: ১১ অক্টোবর ২০১৮     আপডেট: ১১ অক্টোবর ২০১৮      

নাগেশ্বরী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি

প্রতীকী ছবি

নাগেশ্বরীর কচাকাটায় ডোবা থেকে নবজাতকের লাশ উদ্ধারের ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। নবজাতকটির মা ১৩ বছর বয়সের এক কিশোরী। অভিযোগ উঠেছে, সে মা হয়েছে এক মাদ্রাসা শিক্ষকের ধর্ষণের ফলে।

এ ঘটনায় ক্লিনিক মালিকসহ দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার পর ধর্ষক পলাতক থাকলেও তার লোকজনের হুমকিতে ভয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে অসুস্থ কিশোরীসহ তার পরিবার।

ওই কিশোরীর বাবা-মা দু'জনই ঢাকায় শ্রমিকের কাজ করেন। দাদির কাছে থেকে পড়ালেখা করে সে।

প্রতিবেশী ছাত্তার আলীর ছেলে বলদিয়া হায়দাড়িয়া মাদ্রাসার কৃষি বিভাগের শিক্ষক মাইদুল ইসলাম লাভলুর বাড়িতে মাঝে মধ্যে কাজ করত মেয়েটি। প্রায় সাত মাস আগে ফাঁকা বাড়িতে লাভলু তাকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ করে ওই মেয়েটি। এ কথা কাউকে জানালে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয় লাভলু। এতে মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে এবং তার দাদিকে জানায়। পরে ভয়ভীতি দেখিয়ে জোড় করে গর্ভপাত করায় লাভলু। ঘটনা ধামাচাপা দিতে মেয়ের ফুপাকে দিয়ে কচাকাটার জননী ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিকের মালিক পল্লী চিকিৎসক শহিদুল ইসলামের বাড়িতে করা হয় গর্ভপাত। 

এ সময় মেয়েটির শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাদের দ্রুত সরিয়ে ফেলা হয় এবং নবজাতকের লাশ বাড়ির পাশের ডোবায় ফেলে দেওয়া হয়। এরপরই গর্ভপাতের চুক্তির চার হাজার টাকা ক্লিনিক মালিক শহিদুল ইসলামকে দিতে এলে স্থানীয় উত্তেজিত জনতার হাতে আটক হয় মেয়ের ফুফা।

এ বিষয়ে কথা বলতে গেলে কান্নায় ভেঙে পড়ে মেয়েটি। সে জানায়, পড়ালেখার খরচের জন্য লাভলু মাস্টারের বাড়িতে কাজ করত সে। স্ত্রীর অবর্তমানে তাকে ধর্ষণ করে লাভলু। এ কথা কাউকে বললে মেরে ফেলার ভয় দেখায় সে। এদিকে ঘটনার পর থেকে পলাতক শিক্ষক লাভলু। 

মাদ্রাসার সুপার মতিয়ার রহমান জানান, ঘটনা জানাজানির পর থেকে লাভলু মাদ্রাসায় আসে না। তিন দিনের ছুটির আবেদন দিয়ে সে নিরুদ্দেশ।

মেয়েটির বাবা বলেন, এ ঘটনায় মামলা করতে চাচ্ছি। অনেকে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। 

এ প্রসঙ্গে কচাকাটা থানার ওসি ফারুক খলিল জানান, নবজাতকের লাশ ডিএনএ পরীক্ষার জন্য রংপুরে পাঠানো হয়েছে। আটকদের ৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন

উত্তাপের সঙ্গে মিশে আছে উত্তেজনাও

উত্তাপের সঙ্গে মিশে আছে উত্তেজনাও

সারাদেশের ৩০০ নির্বাচনী এলাকার মধ্যে ঢাকা-১ আসন সম্পূর্ণ ব্যতিক্রম। ঢাকা ...

সরব এশিয়া-ইউরোপ

সরব এশিয়া-ইউরোপ

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর গণহত্যা ও নৃশংসতায় বিক্ষুব্ধ হয়ে ইউরোপ ও এশিয়ার ...

তারাই আমাদের বাতিঘর

তারাই আমাদের বাতিঘর

আবার এসেছে ফিরে ডিসেম্বর। শোক, শক্তি ও সাহসের মাস, আমাদের ...

মর্মন্তুদ সেই দিন আজ

মর্মন্তুদ সেই দিন আজ

'আজ এই ঘোর রক্ত গোধূলিতে দাঁড়িয়ে/ আমি অভিশাপ দিচ্ছি তাদের/ ...

রাজনীতিবিদরা কি হারিয়ে যাবেন

রাজনীতিবিদরা কি হারিয়ে যাবেন

পরিসংখ্যান অনেক সময় নির্মম, যেমন পানিতে ডুবে মারা যাওয়া শিশুদের, ...

ব্যবসায়ীদের হাতেই এখন নাটাই

ব্যবসায়ীদের হাতেই এখন নাটাই

গত ৬ অক্টোবর ২০১৮ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫১তম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে মহামান্য ...

নির্বাচন উদ্দীপনার নাকি আশঙ্কার

নির্বাচন উদ্দীপনার নাকি আশঙ্কার

২০১৪ সালে যেমন কোনো বিকল্প ছিল না, এই ২০১৮-তেও তেমনি ...

তোমার আমার মার্কা...

তোমার আমার মার্কা...

বিষণ্ণ মনে সোফায় বসে পেপার পড়ছিলেন বাবা। ক্লাস নাইনে পড়া ...