এক সময়ের প্রমত্তা হাওড় নদী এখন মৃতপ্রায়

প্রকাশ: ০১ ডিসেম্বর ২০১৮     আপডেট: ০১ ডিসেম্বর ২০১৮      

মুনসী লিটন, খোকশা (কুষ্টিয়া)

এক সময়ের প্রমত্তা হাওড় নদী শীর্ণকায় নদীতে পরিণত হয়েছে। গড়াই নদীর অন্যতম প্রাকৃতিক শাখা নদীটির উৎস্যমুখ কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার সিরাজপুর গ্রামে। ২০ কিলোমিটার ভাটিতে পাংশা উপজেলার কসবামাজাইল ইউনিয়নের গঙ্গাধরা গ্রামের মধ্যে গিয়ে আবার গড়াই নদীতে মিশেছে।

নদী তীরের বিস্তীর্ণ এলাকার কৃষি ও মৎস্যজীবীদের কাছে হাওড় নদীটি ছিল আশির্বাদ। খোকসা অংশের ৬ কিলোমিটারে কমলাপুর খাল, নাগড়পাড়া খালসহ ১০টিও বেশি খালের মাধ্যমে কয়েক হাজার একর জমির পানি নিষ্কাশন নিশ্চিত হওয়ায় ফসলের উৎপাদন ভালো হত। নদী তীরের একতার পুর, বনগ্রাম, বাগলী, বয়রাট, মাজাইলসহ প্রায় ৮টি বড় হাট বাজার গড়ে উঠেছিল। বড়বড় পাল তোলা নৌকার সঙ্গে চলতো ইঞ্জিনচালিত লঞ্চ। বর্ষায় ইলিশ মাছসহ সারা বছর পর্যাপ্ত মাছ পাওয়া যেত বিধায় নদী তীরে বেশ কয়েকটি জেলে পল্লী গড়ে উঠেছিল। 

তবে বিপর্যয়ের শুরু হয় গত শতকের সত্তরের দশকে, যখন কয়েক কিলোমিটার পলিমাটি জমে নদীটির উৎস্যমুখ ভরাট হয়ে যায়। নব্বই দশকে নদীটি সচল রাখার মধ্য দিয়ে এলাকার কৃষি, মৎস্য ও নদীর দুই পাড়ে বনায়ন বাড়াতে সরকারি উদ্যোগে এলজিডির মাধ্যমে নদী খনন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। প্রথম পর্যায়ে হাওড় নদীর পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির মাধ্যমে নদীটি কিছুটা হলেও প্রাণ ফিরে পায়। তবে অল্পদিনের মধ্যে নদীর উৎস মুখে স্লুইচ গেট নির্মাণ করায় আবার পলিমাটি ভরাট হতে শুরু করে। এতে এক দশকের মধ্যেই নদীটি মৃতপ্রায় নদীতে পরিণত হয়েছে। ফলে এলাকার কৃষি ও মৎস্য উৎপাদন বন্ধের উপক্রম হয়েছে।

ভুক্তভোগী এলাকাবাসী বলছে, ফারাক্কার বিরূপ প্রভাবে সত্তরের দশকের পর সিরাজপুর হাওড় নদী, কালিগঙ্গাসহ গড়াই নদীর পাঁচটি শাখা নদী শুকিয়ে গেছে। শুধু শুষ্ক মৌসুমে নয়, সারা বছরই পানি শূন্য থাকে এসব নদী তীরের গ্রামগুলো। ফলে কৃষি ও মৎস্য উৎপাদন বন্ধ হওয়াসহ এলাকায় প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের আশঙ্কা করছেন তারা।

নদীটির উৎস্য মুখে 'ভুল পরিকল্পনায়' নির্মাণ করা স্লুইচগেট অপসারণ করে নদীর স্বাভাবিক গতি ফিরিয়ে আনার দাবি জানিয়েছে তারা।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিওতে

আরও পড়ুন

অর্থ আদায়ের 'অদ্ভুত' খাত ভিকারুননিসায়

অর্থ আদায়ের 'অদ্ভুত' খাত ভিকারুননিসায়

"অদ্ভুত অদ্ভুত খাত চালু করে প্রতিনিয়ত অভিভাবকদের পকেট কাটছে ভিকারুননিসা ...

'অপ্রতিরোধ্য বাংলাদেশ' গড়বে আওয়ামী লীগ

'অপ্রতিরোধ্য বাংলাদেশ' গড়বে আওয়ামী লীগ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দুই প্রধান জোটেই চলছে ...

ক্ষমতার ভারসাম্য চায় ঐক্যফ্রন্ট

ক্ষমতার ভারসাম্য চায় ঐক্যফ্রন্ট

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দুই প্রধান জোটেই চলছে ...

যুদ্ধাপরাধীদের সন্তানরাও ভোটের লড়াইয়ে

যুদ্ধাপরাধীদের সন্তানরাও ভোটের লড়াইয়ে

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার আসামি, যুদ্ধাপরাধে ...

সর্বাত্মক সঙ্গী সোভিয়েত ইউনিয়ন

সর্বাত্মক সঙ্গী সোভিয়েত ইউনিয়ন

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ভারত প্রত্যক্ষভাবে সবচেয়ে বেশি সহযোগিতা করলেও ...

৩৬৫ দিনই পাশে

৩৬৫ দিনই পাশে

চলতি বছরের ৭ ডিসেম্বর। রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া যৌনপল্লী থেকে জাতীয় ...

নির্বাচনের খরচে চোখ রাখছে দুদক

নির্বাচনের খরচে চোখ রাখছে দুদক

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চোখ এখন নির্বাচনী মাঠে। প্রচারণায় অস্বাভাবিক ...

বিএনপি কর্মীদের পিটুনিতে আ.লীগ নেতার মৃত্যু

বিএনপি কর্মীদের পিটুনিতে আ.লীগ নেতার মৃত্যু

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটের প্রচারের দ্বিতীয় দিনে ফরিদপুর-৩ (সদর) ...