চুয়াডাঙ্গায় গুলিবিদ্ধ দুই মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশ: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮     আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮      

দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি

উদ্ধার হওয়া আগ্নেয়াস্ত্র ও রামদা- সংগৃহীত

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় ফিরোজ হোসেন (৪২) ও ঝন্টু (৪৫) নামের দুইজনের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

দামুড়হুদা থানা পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে, মাদক বিক্রির টাকা ভাগাভাগি নিয়ে ঝন্টু ও ফিরোজ গ্রুপের মধ্যে গোলাগুলিতে তারা মারা যেতে পারেন। তবে তাদের মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে তদন্ত করছে পুলিশ।  

নিহত ফিরোজ ওরফে ধুলো দামুড়হুদা উপজেলার চারুলিয়া গ্রামের মশিয়ার রহমানের ছেলে এবং ঝন্টু একই উপজেলার দর্শনা ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের আবুল হাশেমের ছেলে। 

বৃহস্পতিবার রাত দেড়টার দিকে দামুড়হুদা মডেল থানা পুলিশ দামুড়হুদা সদর ইউনিয়নের ছটাঙ্গার মাঠ থেকে তাদেরকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে এলাকাবাসী গুলির শব্দ পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে গুলিবিদ্ধ দুইজনকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতলে পাঠানোর ব্যবস্থা করি। হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে মৃত ঘোষণা করেন। 

তিনি আরও বলেন, পরে কয়েকজন স্থানীয় লোক এসে তাদের চিহ্নিত করে। নিহত ফিরোজ ওরফে ধুলো এলাকার একজন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী। তার নামে দামুড়হুদা থানায় হত্যা, চাঁদাবাজি, অপহরণসহ একাধিক মামলা রয়েছে। এ ছাড়া নিহত ঝন্টু একজন মাদক সম্রাট। তার নামেও দামুড়হুদা থানায় একাধিক মাদক রয়েছে। 

ওসি সুকুমার বিশ্বাস বলেন, দুইজনই দীর্ঘদিন ধরে আত্মগোপনে ছিলেন। মাদক বিক্রির টাকা ভাগাভাগি নিয়ে ঝন্টু ও ফিরোজ গ্রুপের মধ্যে গোলাগুলি হয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি। ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি শার্টগান, ২টি গুলির খোসা, ৪টি বোমা, ৩ বস্তা ফেনসিডিল ও ৪টি রামদা উদ্ধার করা হয়েছে। মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। 

আরও পড়ুন

'অপ্রতিরোধ্য বাংলাদেশ' গড়বে আওয়ামী লীগ

'অপ্রতিরোধ্য বাংলাদেশ' গড়বে আওয়ামী লীগ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দুই প্রধান জোটেই চলছে ...

ক্ষমতার ভারসাম্য চায় ঐক্যফ্রন্ট

ক্ষমতার ভারসাম্য চায় ঐক্যফ্রন্ট

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দুই প্রধান জোটেই চলছে ...

যুদ্ধাপরাধীদের সন্তানরাও ভোটের লড়াইয়ে

যুদ্ধাপরাধীদের সন্তানরাও ভোটের লড়াইয়ে

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার আসামি, যুদ্ধাপরাধে ...

সর্বাত্মক সঙ্গী সোভিয়েত ইউনিয়ন

সর্বাত্মক সঙ্গী সোভিয়েত ইউনিয়ন

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ভারত প্রত্যক্ষভাবে সবচেয়ে বেশি সহযোগিতা করলেও ...

৩৬৫ দিনই পাশে

৩৬৫ দিনই পাশে

চলতি বছরের ৭ ডিসেম্বর। রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া যৌনপল্লী থেকে জাতীয় ...

নির্বাচনের খরচে চোখ রাখছে দুদক

নির্বাচনের খরচে চোখ রাখছে দুদক

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চোখ এখন নির্বাচনী মাঠে। প্রচারণায় অস্বাভাবিক ...

বিএনপি কর্মীদের পিটুনিতে আ.লীগ নেতার মৃত্যু

বিএনপি কর্মীদের পিটুনিতে আ.লীগ নেতার মৃত্যু

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটের প্রচারের দ্বিতীয় দিনে ফরিদপুর-৩ (সদর) ...

জনগণ স্বাধীনতার চেতনার পক্ষে ভোট দেবে: তোফায়েল

জনগণ স্বাধীনতার চেতনার পক্ষে ভোট দেবে: তোফায়েল

জনগণ স্বাধীনতার চেতনার পক্ষে ভোট দেবে বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী ...