স্ত্রীকে ডেকে আনলেন স্বামী, কুপিয়ে আহত করল ছেলে

প্রকাশ: ২৩ মে ২০১৯     আপডেট: ২৩ মে ২০১৯      

সিলেট ব্যুরো

সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর এলাকার খাদিমনগর ইউনিয়নের জাহাঙ্গীরনগর গ্রামের মুহিবুর রহমান বেলাল তিনটি বিয়ে করেছেন। এ নিয়ে পারিবারিক অশান্তি লেগেই আছে। বিশেষ করে তৃতীয় স্ত্রী সুমনা আক্তারের সঙ্গে ঝগড়া লেগেই থাকত তার। 

বুধবার রাতে সুমনাকে বাজার খরচের টাকা দেওয়ার নাম করে নগরীর পাঠানটুলা এলাকায় ডেকে আনেন বেলাল। রাত ১১টার দিকে টাকা দিয়ে স্থান ত্যাগ করার সঙ্গে সঙ্গে সুমনার ওপর হামলা চালায় সৎছেলে ইমন ও তার সহযোগীরা। সুমনার শরীরের বিভিন্ন স্থানে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর রাতেই ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়। ওই রাতেই কোতোয়ালি থানা পুলিশ হামলাকারী ইমনকে গ্রেফতার করে।

বৃহস্পতিবার ৫ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে বলে জানিয়েছেন থানার ওসি সেলিম মিয়া। ইমন বেলালের প্রথম স্ত্রীর ঘরে জন্ম নেওয়া সন্তান।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, সন্তানদের অধিকার ও সম্পত্তি নিয়ে সুমনার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে বেলালের। আগে থেকেই সুমনা আলাদা বাসায় বসবাস করে আসছেন। এসব বিরোধের জের ধরে তাকে ডেকে এনে হামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সুমনার কলেজ পড়ুয়া মেয়ে ফাইজা আক্তার। 

তিনি গণমাধ্যমকে জানান, বাজার করে দেওয়ার কথা বলে তার মাকে পাঠানটুলা স্কুলের সামনে যেতে বলেন বাবা মুহিবুর রহমান বেলাল। তিনি যথারীতি বাজারের টাকা হাতে দিয়ে আড়াল হয়ে যান। এরপরই ঘটনাস্থলের পাশেও ওৎ পেতে থাকা ইমনের নেতৃত্বে চার-পাঁচজনের একটি দল মায়ের ওপর হামলা করে পালিয়ে যায়।

বিষয় : সিলেট