হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১২

প্রকাশ: ২৮ জুন ২০১৯      

দিনাজপুর প্রতিনিধি

ফাইল ছবি

দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে হলের সিট দখলকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে প্রায় ১২ জন আহত হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার রাত ১২ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় মামুনুর রশিদ ও রাব্বি শেখ নামে দুইজনকে দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, রাতে শেখ রাসেল হলে ৮টি সিট ফাঁকা থাকায় ওই সিটে থাকার জন্য শিক্ষার্থীদেরকে নিয়ে যায় ছাত্রলীগ নেতা নাহিদ আহমেদ নয়ন। এ সময় ওই হলের ছাত্রলীগ সভাপতি রুহুল কুদ্দুস জোহার সাথে তাথে তার বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় ইটপাটকেল নিয়ে উভয় পক্ষ আক্রমণ করে। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ- এ সময় ৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলিবর্ষণের ঘটনাও ঘটে। সংঘর্ষে উভয়পক্ষের প্রায় ১২ জন আহত হয়। 

দিনাজপুর কোতয়ালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) বজলুর রশিদ জানান, সংবাদ পেয়ে দিনাজপুর কোতয়ালী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলেও তাদেরকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে প্রবেশ করার অনুমতি দেয়নি প্রশাসন। পরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে চলে আসে। এখন পর্যন্ত কোন পক্ষ এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ দায়ের করেনি। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. খালিদ হোসেন জানান, আহতদেরকে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই ঘটনায় উপাচার্যের সাথে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। 

গুলির ঘটনার বিষয়ে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা জোরে শব্দ শুনতে পেয়েছে বলে জানিয়েছে। তবে এটি গুলির নাকি পটকার সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না।