গাইবান্ধার বন্যা কবলিত এলাকায় বাম জোটের নেতারা

প্রকাশ: ২৫ জুলাই ২০১৯      

গাইবান্ধা প্রতিনিধি

নেতারা জেলার বন্য কবলিত বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেন -সমকাল

বাম গণতান্ত্রিক জোটের কেন্দ্রীয় নেতারা গাইবান্ধার বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন ও ত্রাণ বিতরণ করেছেন। 

বৃহস্পতিবার সকালে বাম জোটের নেতারা গাইবান্ধায় পৌঁছান এবং বন্যাদুর্গত বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করে সকাল ১০টায় ফুলছড়ি উপজেলার কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নের মদনেরপাড়ায় চারশতাধিক দুর্গত মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন। পরে দুপুর ২টায় নেতৃবৃন্দ শহরের পৌর শহীদ মিনার চত্বরে বন্যা পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করে সংবাদ সম্মেলন করেন। 

এসব কর্মসূচিতে কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে বাসদ মার্কসবাদী নেতা কমরেড শুভ্রাংশু চক্রবর্ত্তী, সিপিবির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক কাজী সাজ্জাদ জহির চন্দন, বাসদ কেন্দ্রীয় পরিচালনা পর্ষদ সদস্য বজলুর রশিদ ফিরোজ, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য নজরুল ইসলাম, গণসংহতি আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সম্পাদমন্ডলীর সদস্য কমরেড বাচ্চু ভূঁইয়া, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা লিয়াকত আলী, সিপিবির কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য কমরেড মিহির ঘোষ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও জেলা নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাম জোটের জেলা সমন্বয়ক গোলাম রব্বানী, বাসদ মার্কবাদী জেলা আহবায়ক আহসানুল হাবীব সাঈদ, সদস্য সচিব মনজুর আলম মিঠু, জেলা সিপিবির সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল, সাবেক সভাপতি ওয়াজিউর রহমান রাফেল, বাসদ মার্কসবাদী জেলা নেতা আবু রাহেন শফিউল্যাহ, সিপিবি জেলা নেতা ছাদেকুল ইসলাম, সন্তোষ বর্মণ, বাসদ নেতা সুকুমার মোদক, ছাত্র ইউনিয়ন জেলা সভাপতি পঙ্কজ সরকার, সাধারণ সম্পাদক ওয়ারেছ সরকার, ছাত্র ফ্রন্টের পরমানন্দ, রাহেলা সিদ্দিকা প্রমুখ। 

এ সময় কমরেড শুভ্রাংশু চক্রবর্ত্তী অবিলম্বে গাইবান্ধা জেলাকে বন্যাদুর্গত এলাকা ঘোষণা, দুর্গত এলাকায় ত্রাণ ও পুনর্বাসন কার্যক্রম জোড়দার, ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে ধানের চারা বিতরণ, সকল কৃষি ঋণ মওকুফ ও সহজ শর্তে ঋণ প্রদান, সদর হাসপাতালে পর্যাপ্ত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতকরণ, এনজিও ঋণে কিস্তি এক বছর বন্ধ, ভেঙে যাওয়া বাঁধ, রাস্তা, ব্রিজ, কালভার্ট দ্রুত মেরামত, ঢাকার সঙ্গে বন্ধ হওয়া রেল যোগাযোগ চালু, পানি উন্নয়ন বোর্ড, এলজিইডি ও সওজের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের শাস্তি প্রদান, পৌরসভার রাস্তাঘাট ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার দ্রুত সংস্কারের  দাবি জানান।