চট্টগ্রামে ছাত্রলীগ-যুবলীগের সংর্ঘষ: ২৮ কর্মী কারাগারে

প্রকাশ: ০৪ জুলাই ২০১৯     আপডেট: ০৪ জুলাই ২০১৯      

চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রাম নগরের লালখান বাজারে দু'পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় করা মামলায় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের ২৮ কর্মীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আবু সালেম মোহাম্মদ নোমান তাদের কারাগারে পাঠান। আসামিরা আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে তা নাকচ করেন আদালত।

কারাগারে পাঠানো আসামিরা হলেন- আরিফুল হানিফ, মো. তৈয়ব, মো. কাদের, ডিশ সালাহউদ্দিন, তাহের, মো. শামীম, সবুজ মিয়াজী, মো. শাহীন, মো. সুমন, মো. শাহজাহান, মো. আমজাদ, মো. আলী, মো. সুরুজ মিয়া, মহিন, মোক্তার হোসেন, মো. কাউসার, মো. হোসেন সেলিম, মো. শরিফ, মাসুদ রানা, মো. ইমরান, দীন ইসলাম, আলাউদ্দীন, মো. শরিফ, মঙ্গল, শওকত ও আলমগীর।

এ ব্যাপারে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার কাজী শাহাবুদ্দিন আহমেদ বলেন, লালখান বাজারে মারামারির মামলায় ২৮ আসামি আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেছিলেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

গত ৩০ জুন রাতে ও শনিবার বিকেলে লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম মাসুম ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আবুল হাসনাত মো. বেলালের অনুসারীদের মধ্যে দুই দফা সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ১০ জন আহত হয়। এ ঘটনায় নগরীর খুলশী থানায় দুটি মামলা করা হয়েছে। এতে এর আগে ১৮ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।


বিষয় : সংঘর্ষ ছাত্রলীগ যুবলীগ চট্টগ্রাম