বিয়ের প্রলোভনে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা

প্রকাশ: ০৮ জুলাই ২০১৯     আপডেট: ০৮ জুলাই ২০১৯      

জয়পুরহাট প্রতিনিধি

জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে কলেজছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে রায়হান নামের এক বখাটে। গত রোববার সন্ধ্যায় ওই ঘটনায় মেয়ের বাবা বখাটে যুবকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন। ওই বখাটে যুবক একই উপজেলার আগাইর গ্রামের বাসিন্দা।

উপজেলার উচাই বেগুনতলা গ্রামের ওই ছাত্রীর সঙ্গে কয়েক মাস আগে মোবাইল ফোনে পরিচয় হয় রায়হানের। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ২৪ জুন রায়হান ওই মেয়েটিকে বিয়ে করবে বলে কলেজ থেকে ডেকে নিয়ে উপজেলার বাগজানা বাজারের বাসিন্দা সাইদুল ইসলামের বাড়িতে নিয়ে যায়। 

এ সময় ওই বাড়ির লোকজন তাদের রেখে বাড়ির বাইরে যায়। এ সুযোগে বখাটে রায়হান ওই মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে মেয়েটি চিৎকার করতে থাকে। বাজারের লোকজন গিয়ে ওই বাড়ি থেকে তাদের দু'জনকে আটক করে। পরে উৎসুক জনতা দু'জনের কথা অনুযায়ী বিয়ে রেজিস্ট্রি করতে ছেলেমেয়েকে স্থানীয় কাজি অফিসে নিয়ে যায়। সেখান থেকে কৌশলে বখাটে রায়হান ছাত্রীটিকে রেখে পালিয়ে যায়। 

এরপর বিষয়টি মীমাংসার জন্য এলাকায় দফায় দফায় বৈঠক বসে। তবুও এর সমাধান করতে পারেনি স্থানীয়রা। উল্টো ওই ছাত্রীর পরিবারকে বারবার হুমকি দিচ্ছে বখাটে রায়হানের লোকজন। অসহায় পরিবারটি ন্যায়বিচারের আশায় গত রোববার সন্ধ্যায় পুলিশের সহযোগিতা নিতে থানায় উপস্থিত হন।

পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ মনসুর রহমান বলেন, ওই কলেজছাত্রীর মুখ থেকে সব কথা শোনার পর তদন্তপূর্বক রাতেই নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। আসামিকে গ্রেফতার করতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে।