মাগুরায় কিশোর অপরাধ দমনে পুলিশের পদক্ষেপ

প্রকাশ: ২৪ আগস্ট ২০১৯     আপডেট: ২৪ আগস্ট ২০১৯      

মাগুরা প্রতিনিধি

প্রজেক্টরের মাধ্যমে পুলিশের পদক্ষেপ সাংবাদিকদের দেখানো হয়- সমকাল

মাগুরায় কিশোর অপরাধ দমনে পুলিশের পদক্ষেপ অবহিত করতে স্থানীয় সংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছে জেলা পুলিশ। মাগুরা পুলিশ সুপারের কনফারেন্স রুমে শনিবার সকাল ১১টায় এ সভা হয়।

সভায় বক্তব্য রাখেন, পুলিশ সুপার খান মুহাম্মদ রেজোয়ান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পদোন্নতিপ্রাপ্ত এসপি) তারিকুল ইসলাম ও মাগুরা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শামীম খান।

পুলিশ সুপার বলেন, 'জুলাই মাসে মাগুরা জেলায় একাধিক হত্যাকাণ্ড, হত্যা প্রচেষ্টা, চাঁদাবাজি, ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধ কর্মকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। দেখা গেছে, হত্যাসহ সংঘটিত প্রায় সকল অপরাধের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের অধিকাংশই কিশোর। এসব অপরাধ দমনে মহিলা কলেজ ও গালর্স স্কুল চলাকালে বা ছুটির সময় কোন কিশোর এ সকল প্রতিষ্ঠানের সামনে দিয়ে অহেতুক ঘোরাঘুরি করলে পুলিশ তাদেরকে আটক করেছে। অপ্রাপ্ত বয়স্ক কোনও কিশোর শহরে জিকজ্যাক স্টাইলে আঁকাবাঁকাভাবে মটর সাইকেল চালালে বা সন্ধ্যায় স্কুল, কলেজের শিক্ষার্থীদের কোথাও আড্ডা বা অহেতুক ঘোরাঘুরি করলে তাদেরকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। পরে পুনরায় অনুরুপ কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার অঙ্গিকারে ওই সকল কিশোরদের ও তাদের অভিভাবকদের অঙ্গিকারনামা বা মুচলেকা নিয়ে ছাড়া হয়েছে।'

'এছাড়া অপ্রাপ্ত বয়স্ক বা কিশোর মোটরসাইকেল চালকদের বিরুদ্ধে মটরযান আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে পুলিশ মনে করে ইউরোপ, আমেরিকার বিভিন্ন ষ্টার, সুপার ষ্টারদের মত হেয়ার স্টাইল করা ও পোষাক পরিধান করার মতো কালচার এখনও আমাদের দেশের মফস্বল শহরগুলোতে গড়ে ওঠেনি। এ ধরনের হেয়ার স্টাইল ও পোষক কিশোরদের মনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। অনেক সময় যা তাদের জীবনাচরণ পাল্টে দেয়। যে কারনে পুলিশের পক্ষ থেকে সেলুন মালিক ও কর্মচারীদের কোন অপ্রাপ্ত বয়স্ক কাউকে রাফ অ্যান্ড টাফ স্টাইলে চুল না কাটার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।'

তবে পুলিশ সুপার খান মুহাম্মদ রেজোয়ান বলেন, '১৮ বছরের উপরে যাদের বয়স তাদের মানবাধিকারের ব্যাপারে পুলিশ কোন হস্তক্ষেপ করছে না। প্রতিটি মানুষেরই নিজস্ব পছন্দ ও মতামত রয়েছে। কে কিভাবে চুল কাটবেন বা পোষাক পরবেন, সেটা তার নিজের ব্যাক্তিগত পছন্দের বিষয়। তবে কিশোর অপরাধ বৃদ্ধির কারনে পুলিশ শুধু অপ্রাপ্ত বয়স্কদের ব্যাপারে কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।'