প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ: মামা-ভাগ্নে গ্রেফতার

প্রকাশ: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯     আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামা এবং ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে তার ভাগ্নেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তারা হলেন- মহেশপুর উপজেলার আলামপুর গ্রামের আলি হোসেন মোল্লার ছেলে মালয়েশিয়া প্রবাসী মাসুদ ও তার ভাগ্নে শফিউল্লাহর ছেলে রিয়াদ। 

শনিবার ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে। কোটচাঁদপুর থানার ওসি মো. মাহবুবুল আলম রোববার বিকেলে জানান, ভিকটিমের স্বামী ও গ্রেফতার মাসুদ দীর্ঘদিন ধরে মালয়েশিয়ায় থাকেন। গত ১২ সেপ্টেম্বর মাসুদ দেশে আসেন। তার কাছে ধর্ষিতার স্বামী স্ত্রী-সন্তানের জন্য কিছু জিনিসপত্র পাঠান। ওইসব জিনিসপত্র দেওয়ার জন্য মাসুদ ১৩ সেপ্টম্বর কোটচাঁদপুর শহরে ভিকটিমের বাসায় যান। এ সময় ভাগ্নে রিয়াদকে পাহারায় রেখে মাসুদ ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন। এরপর বিষয়টি সামাজিকভাবে মিটমাটের চেষ্টা করেন মাসুদ। ধর্ষিতার পরিবার বিষয়টি নিয়ে জেলা পুলিশ সুপারের কাছে মৌখিক অভিযোগ করেন। পুলিশ সুপার তাদের মামলার পরাপর্শ দেন। এরপর কোটচাঁদপু থানায় মামলা হলে শনিবার রাতে মাসুদ ও রিয়াদকে গ্রেফতার করা হয়।