হাওরের উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শনে রাষ্ট্রপতি

প্রকাশ: ১৫ অক্টোবর ২০১৯      

কিশোরগঞ্জ অফিস

হাওরের উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ- সমকাল

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সপ্তাহব্যাপী কিশোরগঞ্জ জেলা সফরের শেষ দিন মঙ্গলবার অষ্টগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন করেছেন।

এদিন সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত তিনি প্রাইভেট কারে চড়ে নির্মাণাধীন অষ্টগ্রাম-মিঠামইন-ইটনা অলওয়েদার রোড সহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প ঘুরে দেখেন। এ সময় রাস্তার দু'পাশে শত শত নারী-পুরুষ রাষ্ট্রপতিকে হাত নেড়ে শুভেচ্ছা জানান। প্রেসিডেন্টও গাড়ি থেকে হাত নেড়ে তাদের শুভেচ্ছার জবাব দেন।

রাষ্ট্রপতি মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে অষ্টগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শনে বের হন। অষ্টগ্রাম সদর থেকে ধলেশ্বরী নদীতে নির্মিত রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সেতুর ওপর দিয়ে তিনি প্রথমে বাঙ্গালপাড়া ইউনিয়নের নোয়াগাঁও যান। তিনি হাইওয়ে সড়ক পরিদর্শন ছাড়াও নোয়াগাঁও অংশের মেঘনা নদী পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি সেখানে উপস্থিত জনগণের সঙ্গে কথা বলেন। সেখান থেকে পরে তিনি ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম অলওয়েদার সড়কের অষ্টগ্রাম অংশের জিরো পয়েন্ট থেকে কাস্তুল ইউনিয়নের ভাতশালা কাটাগাং রোড পর্যন্ত সড়ক ঘুরে দেখেন। 

এ সময় উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রপতি বলেন, অল্প কিছুদিনের মধ্যে অলওয়েদার রোডের কাজ শেষ হবে। তখন আপনারা সহজে ও কম সময়ে অষ্টগ্রাম থেকে মিঠামইন-ইটনা ছাড়াও ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলা ও বিভাগীয় শহরে যাতায়াত করতে পারবেন। পরে রাষ্ট্রপতি পর্যায়ক্রমে বাহাদুরপুর বাজার এবং পূর্ব অষ্টগ্রাম বাজারের উত্তর পাশে তিন রাস্তার  মোড় পর্যন্ত পরিদর্শন করেন। পূর্ব অষ্টগ্রাম বাজারের উত্তর পাশে তিন রাস্তার মোড়ে একটি গোলচত্বর করার ব্যাপারেও তিনি নির্দেশনা দেন।

এসময় রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তার কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ূয়া, জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী, পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার), অষ্টগ্রাম উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম জেমস সহ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা ছিলেন।

দুপুরের খাবার ও বিশ্রাম শেষে রাষ্ট্রপতি বিকাল ৪টায় অষ্টগ্রাম থেকে হেলিকপ্টারে করে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। এর আগে গত ৯ই অক্টোবর রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ নিজ জেলা কিশোরগঞ্জে আসেন। এই সফরে তিনি তাড়াইল, কিশোরগঞ্জ সদর, মিঠামইন, ইটনা ও অষ্টগ্রাম এই পাঁচ উপজেলায় বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যোগদান করেন।