সিলেটে রবার্ট মিলার

মানবপাচার রোধে বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করবে যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশ: ২৩ অক্টোবর ২০১৯     আপডেট: ২৩ অক্টোবর ২০১৯      

সিলেট ব্যুরো

ছবি: সংগৃহীত

মানবপাচার রোধে বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র কাজ করবে বলে জানিয়েছেন দেশটির রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার। বুধবার সকাল পৌনে ১১টায় সিলেট বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

সিলেটে তিন দিনের সফর শেষে এই সংবাদ সম্মেলন করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত।

এই সফরে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ীসহ সংশ্নিষ্টদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। সম্প্রতি অবৈধভাবে সাগর পথে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপে যাওয়ার পথে অনেক বাংলাদেশি তলিয়ে যান; যাদের মধ্যে অনেক সিলেটি রয়েছেন। অসাধু কিছু ট্রাভেল এজেন্সি মানুষকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপে পাঠানোর স্বপ্ন দেখিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়।

এ প্রসঙ্গে রবার্ট মিলার বলেন, আমরা সিলেট অঞ্চলে মানবপাচার বিরোধী কার্যক্রম এবং অবৈধ ট্রাভেল এজেন্সিগুলোর বিরুদ্ধে গত গ্রীষ্মে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের গৃহীত পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনা করেছি। পাচার বন্ধ করতে করণীয় বিষয়গুলো নিয়ে আমি (সিলেটের) বিভাগীয় কমিশনারের সঙ্গে আলোচনা করেছি। ফৌজদারি আদালতে পাচারকারীদের বিচারসহ বিভিন্ন বিষয় ছিল। এ ছাড়া খনিজসম্পদ উত্তোলনকারী প্রতিষ্ঠান শেভরনের মতো করে নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করা, রাতারগুলের মতো বিশেষ জায়গাগুলো সংরক্ষণ এবং সেখানে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে মানব পাচার রোধ করা সম্ভব বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

এবারের সিলেট সফরের অন্যতম কারণ ছিল শেভরন করপোরেশনের বিবিয়ানা গ্যাস প্ল্যান্ট পরিদর্শন করা- এ কথা উল্লেখ করে রবার্ট মিলার বলেন, আমরা চাই শেভরনসহ যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানিগুলো বাংলাদেশে বিনিয়োগ অব্যাহত রাখুক। এ দেশের অর্থনীতিতে নতুন নতুন উদ্ভাবনী প্রযুক্তি চালু করুক।

তিনি সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মোস্তাফিজুর রহমান ও জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলামের সঙ্গে বৈঠকে আনন্দিত হয়েছেন বলে জানান। এ সময় যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।