নির্যাতিত সেই আইনজীবীর স্বামী গ্রেফতার

প্রকাশ: ০৭ নভেম্বর ২০১৯   

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

আইনজীবী কামরুন্নাহার সেতু

আইনজীবী কামরুন্নাহার সেতু

মানিকগঞ্জ জজকোর্টের এক নারী আইনজীবীকে আটকে রেখে নির্যাতনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় তার স্বামী শাওন মিয়া ওরফে রুবেল মিয়াকে বুধবার রাতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে মানিকগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রেরণ করা হলে ৯নং আদালতের বিচারক জান্নাতুল রাফিন সুলতানা তার ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মানিকগঞ্জের কোর্ট ইন্সপেক্টর হাবিবুল্লাহ সরকার বলেন, গ্রেফতার শাওন মিয়ার প্রকৃত নাম রুবেল মিয়া। তার বাড়ি মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার আজিমনগর ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় প্রতারণাসহ বিভিন্ন অভিযোগে মামলা আছে। অভিযুক্ত আসামির পক্ষে কোন আইনজীবীই আদালতে দাঁড়াননি। সকল আইনজীবীই নির্যাতিত নারী আইনজীবীর পক্ষে দাঁড়িয়ে আসামির ১০ দিনের রিমান্ডের প্রার্থনা করলে বিচারক জান্নাতুল রাফিন সুলতানা ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত)হানিফ সরকার জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শাওন ওরফে রুবেল নারী আইনজীবী কামরুন্নাহার সেতুকে প্রতারণা করে বিয়ে এবং তাকে নির্যাতনসহ টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। তদন্তে সব বেরিয়ে আসবে। 

আইনজীবী কামরুন্নাহার সেতু বলেন, শাওন ওরফে রুবেল তার সঙ্গে প্রতারণা করে তাকে বিয়ে করে নবীনগরের একটি ভাড়া করা কক্ষে রেখে অমানবিক নির্যাতন এবং বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণ করেন। ইন্টারনেটে এসব নগ্ন ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে তার কাছ থেকে ১৬ লাখ টাকা নেন।