চোর সাজিয়ে জিনিসপত্র কেড়ে নেয় তারা

প্রকাশ: ১২ নভেম্বর ২০১৯      

চট্টগ্রাম ব্যুরো

পুলিশের কাছে আটককৃতরা- সমকাল

চট্টগ্রাম নগরের নিউমার্কেট, রিয়াজউদ্দিন বাজার ও নুপুর মার্কেট এলাকায় সিএনজিচালিত অটোরিকশা ভাড়া করে ঘুরে বেড়ায় একদল সদ্য কৈশোর পেরোনো যুবক। এসব মার্কেট থেকে বের হওয়া লোকজন তাদের টার্গেট। চোর আখ্যা দিয়ে টার্গেট ব্যক্তির ওপর আকস্মিক হামলা করে তারা। 

মারধরের একপর্যায়ে জিনিসপত্র ছিনিয়ে নিয়ে সিএনজি অটোরিকশায় মুহুর্তে চম্পট দেয়। গত সোমবার রাতে এ চক্রের চার ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলো- লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ গ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে রেজাউল করিম, কোতোয়ালী থানার মাছুয়া ঝর্ণা খালপাড় গলির আবু তাহেরের ছেলে মো. তৌহিদ, বাকলিয়া থানার মিয়াখান নগরের মো. মুসার ছেলে মো. সাজ্জাদ ও কুমিল্লার তিতাস থানার মো. আকতার হোসেনের ছেলে মো. ফয়সাল। চারজনের বয়স ২৩ থেকে ১৮ বছরের মধ্যে।

কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন জানান, গত সোমবার রাতে নিউমার্কেটে বাজার শেষে জামাল উদ্দিন ও মো. ইমন নামে দুই যুবক নুপুর মার্কেটে কবুতর কিনতে যায়। দুইটি সৌখিন কবুতর কিনে বের হওয়ার সময় তিন চারজন যুবক তাদের কবুতর চোর আখ্যা দিয়ে মারধর শুরু করে। একপর্যায়ে কবুতর, টাকা পয়সা ও নিউমার্কেট থেকে কেনা কাপড় কেড়ে নিয়ে তারা চলে যায়। 

এ ঘটনায় কোতোয়ালী থানায় অভিযোগ করেন ওই দুই যুবক। পরে রাত নয়টার দিকে আন্দরকিল্লা মোড় থেকে রেজাউল করিমকে গ্রেফতার করা হয়। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাত দুইটার দিকে বাকলিয়া বগারবিল এলাকা থেকে মো. তৌহিদকে গ্রেফতার করা হয়। তার বাসা থেকে ছিনিয়ে নেওয়া কবুতরসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র উদ্ধার করা হয়। পরে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মঙ্গলবার ভোররাতে ছিনতাইয়ে জড়িত মো. সাজ্জাদ ও ফয়সালকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে ছিনতাইয়ের শিকার জামাল উদ্দিনের বাবা বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।