অপহরণ মামলায় কারাভোগ করা তরুণের আত্মহত্যা

প্রকাশ: ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯     আপডেট: ১০ ডিসেম্বর ২০১৯   

সমকাল প্রতিবেদক

রাজধানীর সূত্রাপুর এলাকায় অপহরণের মামলায় কারাভোগের পর জামিনে ছাড়া পাওয়া এক তরুণের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার রাতে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় সায়েম হাসান শান্তর (২১) মরদেহ পাওয়া যায়। শান্ত ধোলাইখালের রিপনের ছেলে।

সূত্রাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী ওয়াজেদ আলী জানান, রোববার সন্ধ্যায় নিজের কক্ষে গলায়  ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন শান্ত।

ঘটনাস্থলে একটি সুইসাইড নোট পাওয়া গেছে জানিয়ে ওসি বলেন, শান্তর হাতে লেখা একটি সুইসাইড নোট পাওয়া গেছে। সেখানে আত্মহত্যার জন্য প্রেমিকার বাবাকে দায়ী বলে লিখেছেন শান্ত।

এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল শান্তর। কিছুদিন আগে নিজ বাড়িতে প্রেমিকাকে নিয়ে যান শান্ত। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা কোতেয়ালী থানায় অপহরণ মামলা করেন। ওই মামলায় কারাভোগ শেষে শুক্রবার জামিন পান তিনি।

ওসি বলেন, এ ঘটনাকে আমরা আত্মহত্যা হিসেবেই দেখছি। ময়নাতদন্তের জন্য শান্তর মরদেহ স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। ্পএ ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।