নিজ বাড়িতেই ইউপিডিএফ নেতাকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশ: ১১ জানুয়ারি ২০২০   

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি

উদ্ধারকৃত পিস্তল -সমকাল

উদ্ধারকৃত পিস্তল -সমকাল

খাগড়াছড়ির পানছড়ি উপজেলায় মহেন ত্রিপুরা ওরফে পরেশ ত্রিপুরা (৩৫) নামে এক ইউপিডিএফ নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। 

শুক্রবার রাতে মরাটিলা এলাকায় নিজ বাড়িতে তাকে হত্যা করা হয়। নিহত মহেন ত্রিপুরা পানছড়ির পদ্দিনি পাড়ার মিলন বিকাশ ত্রিপুরার ছেলে। 

এ ঘটনার প্রতিবাদে প্রসীত খীসার নেতৃত্বাধীন ‘ইউপিডিএফ’এর মূল অংশ রোববার পানছড়ি বাজার বয়কট এবং সোমবার পানছড়ি-খাগড়াছড়ি সড়কে আধাবেলা অবরোধ কর্মসূচির ডাক দিয়েছে।

পানছড়ি থানার ওসি মো. নুরুল আলম জানান, নিহত মহেন ত্রিপুরা পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠন ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের সক্রিয় কর্মী এবং মরাটিলা এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে সংগঠকের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ থানায় নিয়ে এসেছে।

তিনি জানান, পুলিশ তিন রাউন্ড গুলিসহ মহেন ত্রিপুরার ব্যবহৃত ইতালির তৈরি ১টি পিস্তল ও  ১৩৫ সিসির একটি পালসার মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে।

এদিকে প্রসীত খীসার নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফের প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের নিরন চাকমা স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে ক্ষোভ প্রকাশ করা বলা হয়েছে- পরেশ ত্রিপুরাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। তিনি গত ৮ বছর ধরে ইউপিডিএফের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় অধিকার আদায়ের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।