রিফাত হত্যা মামলা: অপ্রাপ্তবয়স্ক আসামিদের বিরুদ্ধে বাদীর সাক্ষ্য

প্রকাশ: ১৩ জানুয়ারি ২০২০   

বরগুনা প্রতিনিধি

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরিফ হত্যা মামলায় অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন মামলার বাদী নিহতের বাবা দুলাল শরিফ। সোমবার বরগুনার শিশু আদালতের বিচারক হাফিজুর রহমানের আদালতে সাক্ষ্য দেন তিনি। অন্যদিকে, সাক্ষ্য গ্রহণের প্রথম দিনেই ৫ আসামির বয়স প্রমাণের জন্য ডাক্তারি পরীক্ষার আবেদন করেছে রাষ্ট্রপক্ষ। আবেদনের শুনানির জন্য ১৬ জানুয়ারি নির্ধারণ করেছেন আদালত।

অপ্রাপ্তবয়স্ক আসামিরা হলো- রাশিদুল হাসান রিশান ফরাজী, রাকিবুল হাসান রিফাত হাওলাদার, আবু আবদুল্লাহ রায়হান, ওলিউল্লাহ অলি, জয় চন্দ্র সরকার চন্দন, নাইম, তানভীর হোসেন, নাজমুল হাসান, রাকিবুল হাসান নিয়ামত, সাইয়েদ মারুফ বিল্লাহ, মারুফ মল্লিক, প্রিন্স মোল্লা, রাতুল সিকদার জয় এবং আরিয়ান হোসেন শ্রাবণ।

বয়স প্রমাণের জন্য যাদের বিরুদ্ধে আদালতে আবেদন করা হয়েছে তারা হলো- রাশিদুল হাসান রিশান ফরাজী, জয় চন্দ্র সরকার চন্দন, নাইম, সাইয়েদ মারুফ বিল্লাহ এবং মারুফ মল্লিক। সাক্ষ্যগ্রহণ উপলক্ষে বরগুনা কারাগারে থাকা অপ্রাপ্তবয়স্ক ১১ আসামিকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এদিন আদালতে উপস্থিত হন জামিনে থাকা মামলাটির অন্য তিন আসামি।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল বলেন, রিফাত হত্যা মামলায় অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামির বিরুদ্ধে প্রথম সাক্ষ্য দিয়েছেন মামলার বাদী। এরপর আসামিপক্ষের ১০ আইনজীবী তাকে জেরা করেন।

তিনি আরও বলেন, মামলায় ১৪ অপ্রাপ্ত বয়স্ক আসামির মধ্যে ৫ জনের বয়স ১৮ বছরের বেশি মনে হচ্ছে। কিন্তু পুলিশের দাখিল করা চার্জশিটে তাদের অপ্রাপ্তবয়স্ক দেখানো হয়েছে। তাই রাষ্ট্রপক্ষ ডাক্তারি পরীক্ষার মাধ্যমে তাদের বয়স যাচাই করার জন্য আদালতে আবেদন করেছে। 

সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বলেন, ছেলে হত্যার বর্ণনা আদালতে সঠিকভাবে উপস্থাপন করেছি। আমার বিশ্বাস ন্যায়বিচার পাব।