নাটোরে আইনজীবীকে 'বেয়াদব' বলায় আদালত বর্জন

প্রকাশ: ১৩ জানুয়ারি ২০২০      

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরে জেলা জজ আদালত বর্জন করেছেন আইনজীবীরা। তাদের অভিযোগ, এজলাসে বসে জেলা ও দায়রা জজ আবদুর রহমান সরদার আইনজীবী সাইদুর রহমান সৈকতকে 'বেয়াদব' বলেছেন। এতে এজলাস কক্ষে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। সোমবার ঘটনার প্রদিবাদে মধ্যাহ্ন বিরতির পর আদালত বর্জন করেন আইনজীবীরা।

জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক প্রসাদ কুমার তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, একটি মামলার জামিন শুনানির সময় আইনজীবী সৈকতের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন জেলা ও দায়রা জজ আবদুর রহমান সরদার। একপর্যায়ে আইনজীবীকে 'বেয়াদব' বলেন তিনি। এতে উপস্থিত আইনজীবীরা ক্ষুব্ধ হন। ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার অর্ধদিবস আদালত বর্জন কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। আগামীকাল মঙ্গলবার পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

আইনজীবী সৈকত বলেন, সিংড়া থানার একটি অস্ত্র মামলায় এক আসামির জামিন চাইলে গত ৮ জানুয়ারি জেলা ও দায়রা জজ তা নাকচ করেন। রোববার ফের জামিন আবেদন করলে সোমবার শুনানির কথা বলেন তিনি। শুনানি শেষে আদেশ না দিয়ে অন্য মামলার কাজ শুরু করেন বিচারক। এ সময় তিনি তার আসামিকে জামিন দেওয়ার জন্য দৃষ্টি আকর্ষণ করলে জেলা জজ তার সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন এবং বেয়াদব বলেন। 

বিকেলে জেলা ও দায়রা জজ আবদুর রহমান সরদার বলেন, আইনজীবী সৈকতের মামলার শুনানি শেষে পরে আদেশ দেওয়া হবে জানিয়ে আমি অন্য মামলার শুনানি শুরু করি। এ সময় ওই আইনজীবী ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। তিনি এজলাসে হট্টগোল শুরু করেন। এ সময় অসুস্থতা অনুভব করায় আমি আদালত মুলতবি ঘোষণা করি। মধ্যাহ্ন বিরতির পর সুস্থ হলে এজলাসে গেলেও কোনো আইনজীবী আসেননি।