সাভারে জঙ্গি আস্তানা থেকে নারী আটক, বিস্ফোরক ও অস্ত্র উদ্ধার

প্রকাশ: ১৩ জানুয়ারি ২০২০     আপডেট: ১৪ জানুয়ারি ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক ও নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার

উদ্ধারকৃত বিস্ফোরক ও অস্ত্র- সমকাল

উদ্ধারকৃত বিস্ফোরক ও অস্ত্র- সমকাল

রাজধানীর অদূরে আশুলিয়ার গোকুলনগরের একটি বাড়িতে গড়ে ওঠা জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালিয়ে শায়লা শারমিন (২২) নামে এক নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওই নারীর স্বামী তানভীর আহম্মেদ পলাতক।

তানভীর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজির (আইআইটি) ছাত্র।

পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেপ্তার নারী ও তার স্বামী তানভীর নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন নব্য জেএমবির সদস্য। তানভীর সংগঠনটির আইটি শাখার প্রধান।  সোমবার রাতে অভিযান শেষে বাড়িটিতে তল্লাশি চালিয়ে ড্রোন, বোমা তৈরির সরঞ্জাম, বিস্ফোরক ও খেলনা পিস্তল জব্দ করা হয়।

সোমবার বিকেল থেকে বাড়িটি ঘিরে রেখেছিল পুলিশ। এরপর নিশ্চিত হয়ে বিশেষায়িত দল সেখানে অভিযান চালায়। বগুড়া জেলা পুলিশের সহায়তায় ঢাকা জেলা পুলিশ ও জঙ্গি দমন ইউনিটের সদস্যরা অভিযানে অংশ নেন।

সংশ্নিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, গ্রেপ্তার শায়লা শারমিন গাজীপুর সদর থানা এলাকার বহরীয়াচালা গ্রামের দুলাল আহম্মেদের মেয়ে। সে এইচএসসি পাশ করেছে। তার স্বামী তানভীর আহম্মেদ রাজধানীর বনশ্রী এলাকার মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

জঙ্গি দমনে যুক্ত পুলিশের এক কর্মকর্তা সমকালকে বলেন, তানভীর কয়েক মাস আগে হিজরত করে নব্য জেএমবির বাইয়াত নেয়। সে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের আড়ালে গোপনে সংগঠনের আইটি শাখা দেখভাল করছিল। স্বামীর হাত ধরেই জঙ্গিবাদে জড়ায় শায়লা। তবে দুটি পরিবারের কেউই তা জানত না।

স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, বাড়িটির মালিক আক্তার হোসেন নামের এক প্রবাসী। তিনি সৌদি আরব থাকেন। তার ভায়রা শাহজাহান বাড়িটি দেখাশোনা করেন। অন্তত ১০ দিন আগে স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে দু'জন দুই তলার পুরো বাড়িটি ভাড়া নেন। তবে সব সময়ই সেখানে তালা ঝোলানো থাকত।

অভিযান শেষে রাত ৯টার দিকে ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন সরদার বলেন, অভিযান চলাকালে ওই বাড়িতে ড্রোন বোমা তৈরির সরঞ্জাম পাওয়া গেছে। দোতলা বাড়িটির নিচতলায় শায়লা শারমিন ছিল। ওই বাড়িটিতে ওঠার আগে তারা আশুলিয়ার অন্য একটি বাড়িতে থাকত। সেখানেও অভিযান চালানো হয়েছে। তবে কিছু পাওয়া যায়নি।

পুলিশ সুপার বলেন, বাড়িটি তল্লাশি করে বোমা তৈরির সরঞ্জাম, তিনটি খেলনা পিস্তল, একটি ল্যাপটপ, একটি কম্পিউটার, স্বয়ংক্রিয়ভাবে কাজ করে এমন কিছু সরঞ্জাম ছাড়াও দূর নিয়ন্ত্রিত সরঞ্জাম ও কয়েকটি পেট্রোল বোমা জব্দ করা হয়েছে।